‘তার মুখ থেকে এমন নোংরা গালি কেউ আশা করে না’

 
 

সিসি ডেস্ক, ২৭ ডিসেম্বর।। ভোট পাবে না জেনেই, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট মিলে দেশব্যাপী তাণ্ডব চালানোর পাঁয়তারা করছে- এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে অপেক্ষা করছে।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ধানমন্ডির সুধাসদন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে তিন জেলায় নির্বাচনী জনসভায় অংশ নিয়ে একথা বলেন তিনি। এসময় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেনকে ইঙ্গিত করে শেখ হাবিনা বলেন, ‘তার মুখ থেকে এইরকম নোংরা গালি কেউ আশা করে না।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের পক্ষে ভোট চাইতে বিভিন্ন জেলায় জনসভার পাশাপাশি প্রযুক্তিকেও কাজে লাগাচ্ছে আওয়ামী লীগ। বুধবার বিকেলে ধানমণ্ডির সুধাসদন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে কুষ্টিয়া, নওগাঁ ও চাঁদপুরের নির্বাচনী জনসভায় অংশ নেন শেখ হাসিনা। নিজ দলের প্রার্থীদের ভোটারদের সাথে পরিচয় করিয়ে ভোট প্রার্থনা করেন নৌকা মার্কায়।

গেলো কয়েক দিনে ৫১ জেলায় ৮৮টি সংসদীয় আসনে বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতায় ৫ জন আওয়ামী লীগ কর্মী নিহতের কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ভোটে হেরে যাওয়ার আশঙ্কা থেকেই সহিংস পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে ঐক্যফ্রণ্ট আর বিএনপি।

তিনি বলেন, ‘তারা জানে যে নির্বাচনে জয়ী হতে পারবে না। কারণ সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, অর্থ আত্মসাৎকারীকে মানুষ ভোট দেবে না। আর সে কারণেই তাদের শক্তি দেখাতে চেষ্টা করছে। ২০০১-এর মতই আবার তারা সন্ত্রাসী কার্যক্রম করতে চায়।’

ঐক্যফ্রণ্ট নেতা ড. কামাল হোসেন পুলিশ, গণমাধ্যমকর্মীসহ প্রায় সবার সাথেই অসৌজন্যমূলক আচরণ করছেন অভিযোগ করে শেখ হাসিনা বলেন, নেতা-কর্মীদের শেষ পর্যন্ত ধৈর্য ধরতে হবে।

তিনি বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্টের এখন যিনি নেতা তিনি নাকি আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন। তার মুখ থেকে এইরকম নোংরা গালি কেউ আশা করে না।’

Print Friendly, PDF & Email