শ্রমিকরা কাজে না ফিরলে মজুরি দেয়া হবে না : বিজিএমইএ

 
 

ঢাকা, ১৩ জানুয়ারী।। আগামীকাল সোমবার থেকে শ্রমিকরা কারখানায় কাজ না করলে কোনো মজুরি প্রদান করা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)।

আজ রবিবার দুপুরে পোশাক শিল্পে উদ্ভূত পরিস্থিতি বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘যেসব শ্রমিক কাজে ফিরবে না তারা কোনো মজুরি বা বেতন পাবে না।’আন্দোলনরত শ্রমিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা কর্মস্থলে ফিরে যান, উৎপাদন কাজে অংশগ্রহণ করুন। আগামীকাল থেকে কারখানায় কাজ না করলে আপনাদের কোনো মজুরি দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, যদি কোনো কারখানায় শ্রমিকরা কাজ না করেন তা হলে শ্রম আইনর ১৩(১) ধারা অনুযায়ী ‘নো ওয়ার্ক নো পে’। কোনোভাবেই শ্রমিকদের আর কোনো বেতন প্রদান করা হবে না।

সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আবার বলছি কাজে যোগ দেন। কাজ করুন। কাল থেকে কাজ না করলে কেউ বেতন পাবেন না।বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, শ্রমিকদের নতুন মজুরি কাঠামো নিয়ে ভিন্নমত রয়েছে। সমস্যা সমাধানে সরকার গঠিত ত্রিপক্ষীয় কমিটি কাজ করছে। কমিটি মজুরি কাঠামোর ব্যত্যয় থাকলে তা পুনর্বিবেচনা করবে। তার জন্য আন্দোলন ভাংচুর করার কোনো প্রয়োজন নেই।

শ্রমিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘দেশের অর্থনীতির প্রাণ ও প্রধান কর্মসংস্থান খাত নিয়ে কেউ ছিনিমিনি খেলবে, তা হতে দিবেন না। এ খাত ধ্বংস হলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন আপনারা। আপনারা কর্মহীন হবেন। আপনাদের জন্য কর্মসংস্থান হতে পারে এমন আর কোনো খাত এখনো বাংলাদেশে গড়ে উঠেনি।সংকট নিরসনে সরকার একটি পর্যালোচনা কমিটি গঠন করে শ্রমিকদের কাজে ফেরার আহবান জানিয়েছিল, কিন্তু তার পরও বিক্ষোভ অব্যাহত থাকার প্রেক্ষাপটে আজ রবিবার কঠোর হুঁশিয়ারি এলো মালিকদের তরফ থেকে।

আজ রবিবার আশুলিয়া, মিরপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় কাজ বন্ধ রেখে সড়কে নানা ধরনের প্রতিবাদ কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে শ্রমিকরা।সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী এমপি, সংগঠনটির সাবেক সভাপতি ও ঢাকা উত্তরের মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম, বিজিএমইএ’র সাবেক সভাপতি ও এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

Print Friendly, PDF & Email