পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল ১ কোটি ১৩ লাখ টাকা

 
 

সিসি নিউজ, ১৯ জানুয়ারী।। কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্স ৩ মাস ৬ দিন পর আবারো খোলা পর মিলেছে ১ কোটি ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৪৭৩ টাকা।  এছাড়া বিপুল পরিমাণ সোনাদানাও মিলেছে বলে জানা গেছে। আজ শনিবার সকালে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানের উপস্থিতিতে দানবাক্সটি খোলা হয়। পরে টাকাগুলো প্রথমে বস্তায় ভরা হয়। এরপর শুরু হয় দিনব্যাপী টাকা গণনার কাজ। বিকেলে গণনা শেষে দানের এ টাকার হিসাব পাওয়া যায়।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান জানান, তিন মাস পরপর পাগলা মসজিদের দানবাক্সগুলো খোলা হয়। এবার তিন মাস ৬দিন পর দানবাক্সগুলো খোলা হয়েছে। গণণার পর দানবাক্সে  নগদ ১ কোটি ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৪৭৩ টাকা পাওয়া গেছে।তিনি আরও জানান, এই মসজিদের যখন দান বাক্স খোলা হয়, তখন সাধারণত এক কোটি টাকার কাছাকাছি পাওয়া যায়। এবারও ১ কোটি টাকার উপরে পাওয়া গেছে। টাকাগুলো রূপালী ব্যাংকে জমা রাখা হয়েছে। আর যে স্বর্নালঙ্কার পাওয়া গেছে তা আগের স্বর্ণালঙ্কারের সাথে যোগ করে সিন্দুকে রেখে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দানে পাওয়া গবাদীপশু ছাগল, হাস-মুরগি প্রতি সপ্তাহেই নির্ধারিত দিনে নিলামে বিক্রি করা হয় বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ গত বছরের ১৩ অক্টোবর মসজিদের দানবাক্স খুলে গণনা করে ১ কোটি ১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৬৮৫ টাকা পাওয়া যায়।কিশোরগঞ্জ শহরের পশ্চিমে নরসুন্দা নদীর তীরে এই মসজিদের অবস্থান। এ মসজিদে মানত করলে মনোবাসনা পূর্ণ হয়, এমন ধারণা থেকেই এ মসজিদে দূর-দূরান্তের মানুষও এখানে মানত  করে থাকেন। দান বাক্সে পাওয়া এই টাকা বিভিন্ন মসজিদে দান-খয়রাত, মাদ্রাসার উন্নয়ন ও জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যয় করা হয়ে থাকে বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
error: Content is protected !!