সৈয়দপুরে ক্ষতিপুরণের দাবীতে ব্যবসায়ি ও কর্মচারিদের মানববন্ধন

 
 

সিসি নিউজ, ২০ জানুয়ারী।। নীলফামারী-সৈয়দপুর মহাসড়কের ভুমি অধীগ্রহনে যথাযথ ক্ষতিপুরণ দাবীতে মানববন্ধন পালিত হয়েছে। রবিবার (২০ জানুয়ারী) দুপুরে শহরের ওয়াপদা মোড়ে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে প্রায় সহস্রাধিক বিভিন্ন ক্ষুদ্র দোকানী ও কর্মচারীরা অংশ নেয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ব্যবসায়িরা উন্নয়নের পক্ষে। সড়ক সম্প্রসারনের পক্ষে। এর জন্য আমাদের বলী করা হবে কেন? বর্তমান সরকার সড়ক সম্প্রসারণে ভুমি অধীগ্রহনে প্রত্যেককে তিনগুন অর্থ দিয়ে জমি ক্রয় করছেন। একশ্রেনীর অসাধু কর্মকর্তা সার্ভের সময় পাকা দোকান ঘর টিনের ও আধাপাকা দেখিয়ে দর কমিয়ে আমাদের ক্ষতিগ্রস্থ্য করার পায়তারা করছে। এমনকি প্রকাশ্যে তারা আর্থিক লেনদেন করে অনেকের আধাপাকা দোকান ঘর পাকা দেখিয়ে দ্বিগুন অর্থ প্রদান করছেন। আমরা যারা অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানাই, তাদের বেলায় এমন ঘটনা ঘটছে।
ওয়াপদা মোড়ের ওষুধ দোকানদার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার চারদিকে পাকা দোকান। আমারটা মধ্যখানে পাকা দোকান ঘর। আথচ আমারটি সার্ভেয়ার টিনশেড দেখিয়ে চার ভাগের এক অর্থ প্রদান করছে। ডাঃ আবুল হাসান বুলু বলেন, এখানে অনেকে ভাড়া দোকান নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন। এ সকল দোকানে তারা যে আসবাব দিয়ে সাজিয়েছিল। তাদেরকে দোকান মালিকের দশ ভাগের এক ভাগ টাকা প্রদান করা হচ্ছে। এটা গুরুতর অন্যায়। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
রুহুল, তাজউদ্দীন, এরশাদ, জয়নুল, বাবু, তসলীমসহ অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ির একই অভিযোগ। তাদের সকলের দাবি, ভিক্ষে নয় আমরা ন্যায্য ক্ষতিপুরন চাই।
পায়েল চৌধুরী বলেন, আমার তফশিল বর্ণিত জমি এল এ শাখার কিছু অসাধু কর্মচারী ও কর্মকর্তা আর্থিক সুবিধা নিয়ে আইনুল হক নামের দিনাজপুর এলাকার এক ব্যাক্তিকে ভুমি অধিগ্রহনের টাকা প্রদান করেন। এ নিয়ে ল্যান্ড সার্ভে ৬৬/১৮ নং মামলা দায়ের করেছি। এছাড়াও নীলফামারী সড়ক সম্প্রসারনে ভুমি অধীগ্রহনের বেচা-কেনায় চেক প্রদান নিয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ক্ষতিগ্রস্থরা তাই জমি অধিগ্রহন দপ্তরটির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার আহবান জানান মানববন্ধনে।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
 

error: Content is protected !!