CC News

খানসামায় জমে উঠেছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন (ভিডিও)

 
 

বিশেষ প্রতিনিধি, ১৫ মার্চ।। দিনাজপুরের ১৩ উপজেলায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। আগামী ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জেলার খানসামা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী ও কর্মীদের আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। এতে শঙ্কিত সাধারণ ভোটাররা।
দিনাজপুর জেলা শহর থেকে প্রায় ৫৫ কিলোমিটার দূরের উপজেলা শহর খানসামা। ২য় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চার চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ মোট ১৩ জন প্রার্থী ভোট যুদ্ধে নেমেছে। ১ লাখ ২৫ হাজার ৫৪২ জন ভোটারের জন্য প্রস্তুত ৫২ ভোট কেন্দ্রের ৩৫৬ বুথ। ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদানের অতি উৎসাহী এ উপজেলার ভোটাররা। কিন্তু চেয়ারম্যান পদে জাতীয় পার্টির প্রার্থী বাদে অপর ৩ প্রার্থী একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলায় ভোটের মাঠে ছড়িয়ে পড়েছে উত্তাপ। এতে শঙ্কিত হয়ে পড়েছে সাধারণ ভোটার। ভোটাররা চায় ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুষ্ঠ পরিবেশ।
দীর্ঘ ৩৫ বছর জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার পরও মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেয়া আবু হাতেম বলেন, আমি নিজেও আ’লীগ করি। ৩৫ বছর ধরে জেলা আ’লীগের সাথে জড়িত আছি। প্রত্যেকেরই একটা সাংগঠনিক শক্তি আছে। আজকে যারা নিজেকে আ’লীগ হিসেবে দাবি করে তারা ইতিপূর্বে আ’লীগে ছিল না। এরা আসছে হালুয়া-রুটি খাওয়ার জন্য। এরা হাইব্রীড।
আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়ছেন সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী সহিদুজ্জামান শাহ। তিনি বলেন, আমরা ইতিমধ্যে দেখছি যে, আমাদের কর্মীদের বিভিন্ন সময়ে সরকারী দলের কর্মীরা ধমক দিচ্ছে। তারা একটি ভোট পেলেও নাকি নির্বাচিত হবে। আমি এটা যদিও বিশ্বাস করি না। তবে এখনও ভোটের পরিবেশ সুষ্ঠ রয়েছে। তবে এটা যদি খারাপের দিকে যায় তাহলে প্রশাসন ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানাবো।
তবে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন বলেন, শেখ হাসিনার বাংলাদেশে কারো সন্ত্রাস করার সুযোগ আছে বলে আমি মনে করি না। তাই আমার ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট দিতে যাবে। আর এতে তাদের চক্রান্ত ব্যর্থ হবে।
খানসামা উপজেলা নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, ছোটখাটো আচরণবিধি লঙ্ঘণের মৌখিক অভিযোগ পেলেও লিখিত কোন অভিযোগ পায়নি। নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠ রয়েছে বলে জানান তিনি।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন:

Print Friendly, PDF & Email