• সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৯:১৩ অপরাহ্ন |

শিশুরা শরবত আর বিশুদ্ধ পানি নিয়ে হাসপাতালে

।। নওশাদ আনসারী।। কেউ কিনে এনেছে লেবু, কেউবা চিনি, আরেকজন নিয়ে এসেছে বরফ। আবার বাড়ি থেকে নিয়ে এসেছে ওয়াটার পিউরিফায়ার ফিল্টার, সাথে বালতি গ্লাসও। তাদের বয়স ১২ থেকে ১৬ এরুপ হবে। হাসপাতালে সেবা নিতে আসা আগতরা দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে যেখানে ক্লান্ত সেখানে শিশুরা তাদের হাতে বাড়িয়ে দিচ্ছে ঠান্ডা শরবত আর বিশুদ্ধ পানি। অনেকে নিজেই এসে নিজে থেকেই নিচ্ছেন পানি আর শরবত। সেবার ধরন দেখে শিশুদের মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছেন আশির্বাদ অনেকে।
সৈয়দপুর বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সৈয়দপুর ইউনাইটেড ভলেন্টিয়ার এসোসিয়েশন (সুভা) হয়ে আজ হাসপাতালে এভাবে সেবা দিয়েছে সুভার সদস্য সংগঠন ‘আমাদের প্রিয় সৈয়দপুর’ এর ১৭ জন সদস্য। সংগঠনের বড় ভাইদের সাথে আজ শনিবার (৩০ মার্চ) এভাবে শিশুরাও স্বেচ্ছামূলক সেবাকাজে অংশ নেয় সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে। সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত চলে সেবামূলক কার্যক্রম।
প্রশংসনীয় এ সেবামূলক কাজে অংশ নিয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন সৈয়দপুরের ঐতিহাসিক চিনি মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা শাহিদ রেজা রেজভী সাহেব। তিনি জানান, ইমাম ও খতিবরা শুধু নামাজ পড়াবে তা না, তারা স্বেচ্ছামূলক বিভিন্ন সেবামূলক কাজেও অংশ নিবে এ দীক্ষা ছড়িয়ে দিতেই আজ সুভার পক্ষ থেকে একজন ইমাম হয়ে আমার এ সেবামূলক কাজে অংশ নেওয়া।
এভাবে সংগঠনের বড় সদস্যরা যেখানে কর্তব্যরত ডাক্তারদের সহায়তায় হাসপাতালে শৃংখলা বজায় রাখতে ইমারজেনসি রোগীদের স্ট্রেচারে নিয়ে যাওয়া আবার নিয়ে আসা, স্লিপ অনুযায়ী ডাক্তাররুমে পৌছে দেওয়ার কাজে ব্যস্ত অপরদিকে শিশুরা শরবত আর বিশুদ্ধ পানি নিয়ে সারিবদ্ধ দাড়িয়ে। ক্লান্তদের প্রয়োজনে বাড়িয়ে দিচ্ছে শরবতের গ্লাস। এভাবে সেবা নিতে আসা যাতে কেউ হয়রানি বা ভোগান্তিতে না পড়ে সে জন্য সুভার পক্ষে ব্যতিক্রম এই উদ্দোগ্য গ্রহন করা হয়।
‘আমাদের প্রিয় সৈয়দপুর’ এর অর্থ সম্পাদক সাজিদ সাজু জানান, সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুভার ব্যানারে সেবামূলক কাজের একটি পবিত্র দায়িত্ব দিয়েছেন আমাদের। সেবামূলক কাজকে পূর্ণরুপ দিতে আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি। তাই আজ গরমকালের চিন্তা করে আমরা হাসপাতালে নিজেদের দায়িত্বের পাশাপাশি সেবা নিতে আসা আগতদের জন্য শরবত আর পানির ব্যবস্থা করি। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে আমাদের।
সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস.এম.গোলাম কিবরিয়া জানান, সুভার মাধ্যমে স্বেচ্ছায় সেবামূলক কাজকে সৈয়দপুরে সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে সুভার সদস্য সংগঠনগুলো আপ্রাণ কাজ করে যাচ্ছে। সুভার সেবামূলক কার্যক্রম ভবিষ্যতে দেশের জন্য অনুসরণীয় হয়ে উঠুক তার জন্য আমাদের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।
উল্লেখ্য সৈয়দপুরের বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠনগুলোকে একত্রিত করে সুভা অর্থাৎ সৈয়দপুর ইউনাইটেড ভলেন্টিয়ার এসোসিয়েশন গঠন করেন সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এস.এম.গোলাম কিবরিয়া। এবং প্রত্যেক সংগঠনকে লটারির মাধ্যমে একদিন করে স্বেচ্ছায় হাসপাতালে সেবামূলক কাজের দায়িত্ব নিয়ে সেবা প্রদান করে আসছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ