• রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ০৬:০১ অপরাহ্ন |

পাকেরহাট ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস!

Red Chilli Saidpur

বিশেষ প্রতিনিধি, ৩০ এপ্রিল।। দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় আজ মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিক (এমসিকিউ) প্রশ্নের বদলে দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্নপত্র প্রদান করেছে কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।  এতে ওই বিষয়ের প্রশ্নপত্রটি পরীক্ষার্থীদের মাঝে ফাঁস হয়ে যায়। অপরদিকে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রশ্ন ফেরত নিয়ে প্রথম পত্রের প্রশ্নপত্র প্রদান করতে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের সময় ক্ষেপনের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট সরকারী ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে।

এই ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলা ও গাফিলতির অভিযোগে কেন্দ্র সচিব ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মনোনীত কর্মকর্তাসহ ৭জনকে পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করেছে বোর্ড কর্তৃপক্ষ। অপরদিকে, আগামী ২ মে জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা স্থগিত করে তা ১৩ মে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক।

শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ১০টায় দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট সরকারী কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষার জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রসহ আরও তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা শুরু হয়। এ সময় কেন্দ্রের ৩০২ ও ৩০৩ নম্বর কক্ষে জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিকের বদলে দ্বিতীয় পত্রের নৈর্ব্যক্তিকের প্রশ্নের খাম খোলা ও বিলি করা হয়। মুহূর্তের মধ্যে সেটি পরীক্ষার্থীদের নজরে এলে পুনরায় জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা শুরু করা হয়।

এ বিষয়ে খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম জানান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের নির্দেশে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপাধাক্ষ্য উমাপদ অধিকারী, উপজেলা প্রশাসনের দায়িতপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম, প্রভাষক রফিকুল ইসলাম এবং ভুল প্রশ্ন বিলি করা দুটি কক্ষের ৪জন কক্ষ পরিদর্শকসহ ৭জনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

তিনি জানান, এইচএসসির বাকী পরীক্ষাগুলোর জন‌্য অত্র কলেজের রসায়নের প্রভাষক মহিউদ্দিনকে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পরীক্ষাকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ট্যাগ কর্মকর্তা উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মোঃ শরিফুল ইসলামের স্থলে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মাসুদ রানাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এছাড়া উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আলতাব হোসেনকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য বন্ধ আছে।

আর্কাইভ