CC News

বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারির সাড়ে তিন বছর!

 
 

সিসি ডেস্ক, ৩ জুন।। বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারি মামলার সাড়ে তিন বছর পরেও অভিযোগপত্র দিতে পারেনি দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। তবে এই ইস্যু নিয়ে কথা বলতে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন দুদক চেয়ারম্যান। আর সংস্থাটির আইনজীবী বলছেন, বেসিক ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাচ্চুকে অভিযুক্ত করে শিগগিরই অভিযোগপত্র দেয়া হবে।
দুই হাজার ১৫ সালের সেপ্টেম্বরে বেসিক ব্যাংকের ২১শ কোটি টাকা ঋণ জ্বালিয়াতির ঘটনায় ৫৬ টি মামলা করে দুদক। আসামী করা হয়েছিল ব্যাংকটির সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফখরুল ইসলামসহ ১২৭ জনকে। কিন্তু আত্মসাত হওয়া বড় ঋণ গুলোর প্রধান অনুমোদনকারী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাচ্চুর নাম আসামীর তালিকায় আসেনি।
আসামী তালিকায় আব্দুল হাই বাচ্চু ও তৎকালীন পরিচালনা পর্ষদকে মামলার আসামী না করায় আদালতের অসন্তোষ প্রকাশের পর ২০১৭ ও ২০১৮ সালে বাচ্চুকে ৫ বার জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। এর পর কয়েকটি মামলার বাদী বদল হয়।এবং স্থবির হয়ে যায় মামলা কার্যক্রম।
কিন্তু বেসিক ব্যাংক নিয়ে কথা বলতে চান না দুদক চেয়ারম্যান। তার মতে ব্যাংকিং খাতে এর চেয়ে বড় কেলেঙ্কারির ঘটনা আছে।
দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, বেসিক ব্যাংক, বেসিক ব্যাংক আর বেসিক ব্যাংক নিয়েই আছেন আপনারা। এর চেয়ে অনেক বড় দুর্ণীতির অনেক ঘটনা আছে।
তবে দুদকের আইনজীবী বলছেন এই কেলেঙ্কারির মূল নায়ক বাচ্চুর বিরুদ্ধে যথেষ্ঠ প্রমাণ পাওয়া গেছে।
বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারি মামলাগুলো সংখ্যায় বেশী হওয়ায় অভিযোগপত্র দাখিলে সময় লাগছে বলে জানান দুদকের আইনজীবী।

উৎস: ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন

Print Friendly, PDF & Email