• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন |

ইমপেরিয়াল হসপিটাল উদ্বোধনে ডা. শেঠী

নারায়ণা হেলথের চেয়ারম্যান ডা. শেঠী শনিবার সকালে পাহাড়তলীতে নব প্রতিষ্ঠিত হাসপাতাল প্রাঙ্গণে বেসরকারি হাসপাতালটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

ভারতের নারায়ণা হেলথ এবং ইমপেরিয়াল যৌথভাবে এই হাসপাতালের কার্ডিয়াক সেন্টারটি পরিচালনা করবে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।

প্রায় সাত একর জমির উপর পাঁচটি ভবন নিয়ে প্রতিষ্ঠিত ইমপেরিয়াল হসপিটালের মোট আয়তন ছয় লাখ ৬০ হাজার বর্গফুট।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী প্রসাদ শেঠী বলেন, এই হাসপাতালে আন্তর্জাতিক মানের পরিকল্পিত স্বাস্থ্যসেবা চালু হয়েছে। এটি বাংলাদেশে সঠিক ও উন্নত স্বাস্থ্যসেবার নতুন সংযোজন।

“ভালো চিকিৎসার জন্য ভারত, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে যাওয়া বাংলাদেশি মানুষের সংখ্যা প্রতিবছর বাড়ছে। এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার ফলে এ প্রবণতা অনেকাংশে হ্রাস পাবে।”

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে ইমপেরিয়াল হসপিটাল লিমিটেডের (আইএইচএল) বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, উন্নত স্বাস্থ্যসেবার অপ্রতুলতায় বহু রোগী বিদেশে যেতে বাধ্য হচ্ছে। এতে তাদের ও তাদের পরিবারকে আর্থিক, মানসিক ও শারীরিক চাপের মুখে পড়তে হয়।

“এ অবস্থা থেকে কিছুটা মুক্তি পেতে উন্নত বিশ্বের আলোকে হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।”

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ, রোগী নিরাপাত্তা এবং কর্মী নিরাপত্তাকে প্রাধান্য দিয়ে হাসপাতালটি নির্মাণ করা হয়েছে। এখানে ১০ শতাংশ অস্বচ্ছল রোগিদের নিয়মিত সেবা দেওয়া হবে।

হাসপাতালের বহির্বিভাগে ৬২ জন কনসালটেন্ট নিয়মিত সেবা দেবেন।

এতে থাকছে ৫৮টি ক্রিটিকাল কেয়ার বেড, ৪৪ শয্যার নিওনেটাল ইউনিট এবং আট শয্যার পেডিয়াট্রিক আইসিইউ।

সার্বক্ষণিক ইমার্জেন্সি ও কার্ডিয়াক, ট্রান্সপ্ল্যান্ট, নিউরো, অর্থপেডিক ও গাইনি অবস সম্বলিত ১৪টি মডিউলার অপারেশন থিয়েটার আছে এ হাসপাতালে।

বেসরকারি এই হাসপাতালে আছে ৮৮টি সিঙ্গেল কেবিন ও ৭৬টি ডাবল কেবিন। রোগীর স্বজনদের জন্য হাসপাতাল প্রাঙ্গণে অন্য একটি ভবনে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পাশাপাশি বিশেষায়িত ব্লাড ব্যাংক, ফিজিক্যাল মেডিসিন, ডায়ালাইসিস, ডায়াগনস্টিক, থেরাপি, বায়ো-কেমিক্যাল এবং প্যাথলজিক্যাল টেস্টের জন্য আছে ২৩টি ল্যাবইফ সাপোর্টভিত্তিক অ্যাম্বুলেন্স এবং মুমূর্ষু রোগীকে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে স্থানান্তরের জন্য হেলিপ্যাডও আছে হাসপাতালটিতে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক স্থাপত্য সংস্থার নকশানুযায়ী নির্মিত হাসপাতালটি অগ্নিঝুঁকিমুক্ত ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের আঘাত সহনশীল সরঞ্জাম দিয়ে নির্মিত।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

সভাপতিত্ব করেন আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক। সূচনা বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের কমিশনিং কনসালটেন্ট এড লি হ্যানসন এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন হাসপাতালের এমডি আমজাদুল ফেরদৌস চৌধুরী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ