• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন |

কুড়িগ্রামে পাওনা টাকা চাওয়ায় গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

কুড়িগ্রাম, ১৭ জুন।। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে ঘাতক রবিউল ইসলাম কর্তৃক কিলঘুষি ও মোটর সাইকেল চাপায় আন্জু আরা (৪০) নামের পাওনাদার এক গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকার ১১ টার দিকে ফুলবাড়ী উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের বালারহাট ডিএম দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায়। নিহত গৃহবধূ আন্জু আরা নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের বালাটারী গ্রামের মৃত- বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী। তিনি ২ ছেলে, ৩ মেয়ের জননী ছিলেন।
নিহত গৃহবধূর জেঠাতো ভাই ও নাওডাঙ্গা ইউপির গ্রাম পুলিশ আব্দুল করিম জানান, তার বোন নিহত আন্জু আরা নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের বালাটারী গ্রামের দুধ বিক্রেতা নবি মিয়ার ছেলে রবিউল ইসলামকে ১ লাখ টাকা কর্জ দেয়। টাকা দেয়ার ৬ মাস অতিবাহিত হলেও রবিউল ইসলাম তা পরিশোধ করতে টালবাহানা করে। এরমধ্যে আন্জু আরার মেয়ে রুমী অসুস্থ্য হয়ে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হলে তার চিকিৎসায় টাকার প্রয়োজন হয়। মেয়ের চিকিৎসার টাকার তাগিদে গৃহবধূ আন্জু আরা রোববার সকাল ১১ টার দিকে দেনাদার রবিউল ইসলামকে রাস্তায় দেখে পাওনা টাকা চাইতে গেলে মোটর সাইকেলে থাকা রবিউল ইসলাম ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এসময় পাওনাদার আন্জু আরাকে কিল-ঘুষি মেরে রাস্তায় ফেলে দেয়। এরপর তাকে মোটর সাইকেল চাপা দিয়ে সহযোগিদের নিয়ে সটকে পড়ে। পরে রাস্তা থেকে তার স্বজনরা আন্জু আরাকে উদ্ধার করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত-ঘোষণা করে।
এ ঘটনায় নিহত আন্জু আরার ছেলে দুদুল মিয়া বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থানায় রোববার বিকেলে ঘাতক রবিউল ইসলামসহ দুইজনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।
এ ব্যাপারে ফুুলবাড়ী থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, নিহত গৃহবধূর ছেলের দাযের করা হত্যা মামলটি গ্রহণ করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ