বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছাত্রদলের বহিষ্কৃতদের ভাংচুর

 
 

ঢাকা, ২৫ জুন।। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার, বয়সসীমা তুলে দিয়ে নিয়মিত কমিটি ও কাউন্সিলের তারিখ বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদলের বহিষ্কৃত গ্রুপ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় ভাংচুর চালিয়েছে।

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এতে একজন আহত হয়েছে।

এদিকে দুপুর ১টায় এ আন্দোলন একদিনের জন্য স্থগিতের ঘোষণা দেন সদ্য বহিষ্কৃত ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি ইখতেয়ার মাহমুদ কবির।

তিনি বলেন, আমরা দাবি আদায়ে বিক্ষোভ করায় সিনিয়র নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে আমাদেরকে শান্তিপূর্ণ থাকার প্রস্তাব এসেছে। আমরা তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে আগামীকাল আন্দোলন স্থগিত রাখবো।

তিনি আরো বলেন, যদি আগামীকালের মধ্যে সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে কার্যালয়ে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলে তার জন্য সিন্ডিকেট দায়ী। এটা তাদেরকে জানিয়ে দিতে চাই।

এদিকে সকালে কাকরাইলের স্কাউট ভবনের সামনে থেকে মিছিল নিয়ে বহিষ্কৃত ছাত্রনেতাদের নেতৃত্বে বিক্ষুব্ধরা বিএনপি কার্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেয়। ওই সময়ে কার্যালয়ের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা ছাত্রদলের বেশ কিছু নেতাকর্মীকে ধাওয়া দেন তারা।

কার্যালয়ে নিচের শাটার ও গেইটে লাথি মারেন বিক্ষুব্ধরা। নিচ তলায় ধাওয়া খাওয়া নেতাকর্মীদের সঙ্গে বিক্ষুব্ধদের মারামারিতে মাহবুবুর রহমান ইমতিয়াজ নামে এক বিক্ষোভকারী আহত হয়।

কমিটির বহিষ্কৃত সহসভাপতি ইখতিয়ার বলেন, ভেতরে যারা আছেন তারাই চেয়ার, টেবিল ও সিসি টিভির ক্যামেরা ভাংচুর করেছেন। আমরা যখন ভেতরে ঢুকতে যাই, তখন ভেতরে যারা ছিলেন, তারা কাপ-পিরিচ ছুড়ে মেরেছেন। এতে আমাদের একজন আহত হয়েছেন।

বেলা ১২টায় বিক্ষোভকারীরা ভবনের নিচতলায় বিদ্যুতের মেইন সুইচ বন্ধ করে দিলেও পরে ভেতরে অবস্থানরত কর্মীরা প্রধান ফটকের পরের শাটার গেট বন্ধ করে দিয়ে আবার বিদ্যুতের মেইন সুইচ চালু করে।

কার্যালয়ের ভেতরে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, এবিএম মোশাররফ হোসেন, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জু্য়েল, রাজীব আহসান, আকরামুল হাসানসহ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা এবং ৩০/৪০ জন কর্মী অবস্থান করছেন।

এদিকে বিএনপির একাধিক সূত্র জানায়, মূলত ছাত্রদলের বিদ্রোহী গ্রুপের কর্মীরাই এই ভাংচুরে অংশ নেন।

Print Friendly, PDF & Email