• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১২:৫৯ অপরাহ্ন |

রিফাতের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা, ২৭ জুন ।। বরগুনায় প্রকাশ্যে কুপিয়ে যুবক হত্যার ঘটনায় জড়িতদের যেকোনো মূল্যে গ্রেফতার করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বরগুনার ঘটনা খুবই দুঃখজনক। এ ঘটনায় এরই মধ্যে গ্রেফতার হয়েছেন। যেকোনো মূল্যে এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রকাশ্যে কেন এরকম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো? তাহলে দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এগুলো বিচ্ছিন্ন ঘটনা। বরগুনার ঘটনাতো রাজনৈতিক নয়। এটা রাজনীতির কারণে ঘটেনি।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশে বিরোধী দল আছে, তারা এমন কিছু ঘটাতে পারেনি যে আইনশৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটবে। তবে এরকম ঘটনা পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতেও ঘটে। সামাজিক অস্থিরতা অনেক দেশেই আছে।’

যারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তারা মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিল এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘এ বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

বিশ্বজিৎ হত্যার ঘটনার প্রসঙ্গে অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সরকারতো কাউকে ছাড় দেয়নি। এখানে ছাত্রলীগের কর্মীরও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।’

উল্লেখ্য, বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের সঙ্গে লড়াই করেও তাকে বাঁচাতে পারেননি। একাধারে রিফাতকে কুপিয়ে বীরদর্পে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করে খুনিরা। তারা চেহারা লুকানোরও কোনো চেষ্টাও করেনি। গুরুতর আহত রিফাতকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় শতচেষ্টা করেও তার রক্তক্ষরণ বন্ধ করা যায়নি। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে হাসপাতালেই তার মৃত্যু হয়।

রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি সড়কের আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন বন্ড ও তার প্রতিবেশী দুলাল ফরাজীর দুই ছেলে রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী এবং রাব্বি আকন তার স্বামীর ওপর হামলা করে। তিনি বলেন, আমার সামনে ওই সন্ত্রাসীরা রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি শতচেষ্টা করেও আমার স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আয়শা আক্তার মিন্নির সঙ্গে দুই মাস আগে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। বুধবার রিফাত ও তার স্ত্রী মিন্নি সকাল ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা রাম দা নিয়ে রিফাতের ওপর চড়াও হয়। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ