• বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৩:১৯ অপরাহ্ন |

খানসামা উপজেলার এডিপির ৯ লাখ টাকা ফেরত!

এস. এম. রকি, খানসামা ।। দিনাজপুরের খানসামা উপজেলা পরিষদের মাসিক সভায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা অনুপস্থিত থাকায় সরকারী কোষাগারে ফেরত গেল উপজেলার উন্নয়নে এডিপি প্রকল্পের বরাদ্দকৃত ৯ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা।
বরাদ্দ ফেরত বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ সর্বত্র আলোচনা-সমালোচনা চলছে।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, খানসামা উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবু হাতেম নির্বাচিত হওয়ার পর গত ২০ মে মাসিক সভা ও বরণ অনুষ্ঠান, ১৩ জুন মাসিক সভা এবং ২৪ জুন জরুরী সভায় ইউপি চেয়ারম্যানগণ ও স্থানীয় সাংসদের প্রতিনিধি অনুপস্থিত থাকায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের এডিপি প্রকল্পের ৯ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা উন্নয়ন বরাদ্দের বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় জুন মাসে অর্থ বছর শেষ তাই সরকারী কোষাগারে টাকাটা ফেরত চলে যায়।
এ বিষয়ে কয়েকজন ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে কথা হলে তাঁরা জানান, ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমরা সকলে নৌকা মার্কার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করি কিন্তু উপজেলা নির্বাচন চলাকালীন সময়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আমাদের সম্পর্কে কটুক্তি করে বক্তব্য দেয় তাই এই ব্যাপারে উনি (আবু হাতেম) দু:খ প্রকাশ করে বিবৃতি না দেওয়া পর্যন্ত আমরা ওনার (উপজেলা চেয়ারম্যান ) সভাপতিত্বে কোন মাসিক সভা কিংবা সমন্বয় সভায় আমরা অংশগ্রহন করব না।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম জানান, উপজেলা পরিষদের প্রথম সভায় ইউপি চেয়ারম্যানরা অনুপস্থিত থাকলে তাঁদের সাথে এ বিষয়ে কথা হয়েছে ও তাঁদেরকে সভায় উপস্থিত করার জন্য আলোচনা চলছে আর উন্নয়ন বরাদ্দের টাকা ফেরতের কারন মন্ত্রণালয়কে চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়েছে।
উপজেলা চেয়ারম্যান আবু হাতেম জানান, কারো দ্বারা প্ররোচিত হয়ে হয়তোবা চেয়ারম্যানরা মিটিং-এ অনুপস্থিত ছিল যার কারনে উন্নয়ন বরাদ্দের টাকা ফেরত গেল যা সত্যিই দু:খজনক তবে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আগামী সভায় ইউপি চেয়ারম্যানরা উপস্থিত থাকবে বলে আশাকরি। তিনি ইউপি চেয়ারম্যানদের অভিযোগ নাকচ করে বলেন তাঁরা সবাই আমার জুনিয়র তাদের সম্পর্কে বাজে মন্তব্য করার প্রশ্নই উঠে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ