সৈয়দপুরে ৬ মাদকসেবী ও জুয়াড়ীর কারাদন্ড

 
 

সিসি নিউজ, ৩ জুলাই ।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে মাদক সেবন ও জুয়া খেলার অপরাধে ৬ তরুণের পৃথক মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার গত মঙ্গলবার (২ জুলাই) রাতে ওই দন্ডাদেশ দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছে শহরের ইসলামবাগ এলাকার দীলিপ কুমার চক্রবর্তীর ছেলে সাগর চক্রবর্তী (২৩), রসুলপুর এলাকার নুর ইসলামের ছেলে মো. আশিক হোসেন (২২), ইসলামবাগ চিনি মসজিদ এলাকার মো. ফরিদ আহমেদের ছেলে ফারাদ ফরিদ, দিনাজপুর রোডের সুবত ঘোষের ছেলে রনক ঘোষ(২৬), গোলাহাটের জামান মিয়ার ছেলে মো. শাওন (২৩) ও গোলাহাটের মাহ্মুদুল আল ফারুকের ছেলে মাহ্মুদুল হাসান (২২)।

এদের মধ্যে মাদক সেবনের দায়ে সাগর চক্রবর্তীর ৬ মাস, আশিক হোসেনের এক মাস ও ফারাদ ফরিদের ৭ দিন এবং জুয়ার খেলার অপরাধে রনক ঘোষ, মো. মাওন ও মাহমুদুল হাসানের প্রত্যেকের ৭ দিনের করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। সাজাপ্রাপ্তদের আজ বুধবার নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়।
পুলিশ সূত্র জানান, ঘটনার দিন সন্ধ্যায় সাজাপ্রাপ্ত উল্লিখিতরা শহরের রেলওয়ে মাঠে বসে গাঁজা সেবন, নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ও সিরাপ পানে নেশা করছিল এবং মোবাইল ফোনে জুয়ার খেলছিল। এ সময় সোর্সের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফিরোজের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ৬ তরুণকে মাদক সেবন ও জুয়ার খেলা অবস্থায় হাতেনাতে আটক করেন। এ ্সময় তাদের কাছ থেকে কয়েক পুড়িয়া গাঁজা, নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ও সিরাপ এবং কয়েকটি মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়। পরে আটককৃত মাদকসেবী ও জুয়াড়িদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতে বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার ( ভূমি) মাদক সেবন ও জুয়ার খেলার অপরাধে উল্লিখিত তরুণদের আলাদা আলাদা মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করেন। এ সময় উদ্ধারকৃত গাঁজা ও নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ধ্বংস করা হয়েছে।
সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহজাহান পাশা ভ্রাম্যমান আাদলতে ৩ তরুণের পৃথক মেয়াদে সাজার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email