• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন |

জেলা পরিষদ ভবনের সামনে বসছে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল

।। সিসি ডেস্ক ।। দেশের ৬৪ জেলার জেলা পরিষদ ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন হতে যাচ্ছে। আগামী বছরের ১৭ মার্চে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর আগেই এ কাজ শেষ করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি স্থানীয় সরকার বিভাগের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সম্মলেন কক্ষে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়সভায় এ বিষয়ে তাগিদ দেওয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। সে হিসাবে ২০২০ সালে তাঁর জন্মশতবর্ষ পূর্ণ হতে যাচ্ছে। সরকারের পক্ষ থেকে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কে ‘মুজিব বর্ষ’ হিসেবে উদ্যাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন ও কর্মসূচি বাস্তবায়নে আলাদা দুটি জাতীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত ২০ মার্চ এই কমিটির প্রথম সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এযাবৎকালের সর্ববৃহৎ পদক্ষেপ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত উদ্যাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘এর মাধ্যমেই দেশের মানুষ সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে।’ প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘শুধু ঢাকা শহর বা দেশের বড় বড় শহরে যেন এটা সীমাবদ্ধ না থাকে। আমরা সারা দেশের তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালা ছড়িয়ে দিতে চাই।’

এদিকে গত ৩ জুলাই স্থানীয় সরকার বিভাগের মতবিনিময়সভায় অন্য যেসব বিষয়ে আলোচনা হয়, তার মধ্যে ছিল জেলা পরিষদসমূহকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করতে আয়বর্ধক প্রকল্প গ্রহণ করা, ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্রকল্প পরিহার করে দৃশ্যমান প্রকল্প গ্রহণ করা, দ্রুত শূন্যপদ পূরণ করা ও বছরে কমপক্ষে দুইবার এ ধরনের মতবিনিময়সভার আয়োজন করা। এ ছাড়া সিদ্ধান্ত হয়, বিভাগীয় কমিশনাররা প্রতি দুই মাস অন্তর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গে সভা করবেন এবং জেলা পরিষদ নিজস্ব জমিজমার হিসাব সংরক্ষণ করবে ও বেদখল সম্পত্তি উদ্ধার করবে।

দেশের সব জেলা পরিষদ ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, ‘জেলা পরিষদের নিজস্ব ব্যয়েই এসব ম্যুরাল স্থাপন করা হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ