নীলফামারীতে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

 
 

নীলফামারী, ৯ জুলাই॥ এক গৃহবধুকে ধর্ষণ মামলায় নীলফামারী জেলা সদরের সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামালকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (৯ জুলাই) দুপুরে নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ রেজাউল করিম সরকার ওই ইউপি চেয়ারম্যানকে করাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
মামলার অভিযোগ মতে, ২০১৬ সালের ২৭ জানুয়ারী ভোরে জেলা সদরের সোনারায় ইউনিয়নের উত্তর মুসরত কুখাপাড়া গ্রামের প্রতিবেশী এক গৃহবধুকে বাড়ির বাইরে একা পেয়ে ধর্ষণ করেন সোনারায় ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল। এমন অভিযোগে পরদিন ২৮ জানুয়ারী ওই গৃহবধু ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামী করে চার জনের নামে আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। মামলায় আজ মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালতের বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে ইউপি চেয়ারম্যানকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
ইউপি চেয়ারম্যানের আইনজীবী আবু মোহাম্মদ সোয়েম বলেন, ওই মামলায় উচ্চ আদালত থেকে ছয় সপ্তাহের জামিনে ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল। জামিন শেষে মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থণা করেন। বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে মোস্তফা কামালকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
 

error: Content is protected !!