ডিমলায় স্বামীকে আটক করে নববধুকে ধর্ষনের চেষ্টা

 
 

ডিমলা,  ১২ জুলাই॥ স্বামী সবুর আলীকে আটক করে নববধুকে ধর্ষনের চেষ্টা করা হয়েছে। ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে ৫ বখাটে যুবক তার শ্লীলতাহানী ঘটনায়। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) রাত ১০টার দিকে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের পূর্বখড়িবাড়ী কলোনীপাড়ার তিস্তা নদীর ধারে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে নববধু বাদী হয়ে ৫জনের বিরুদ্ধে ডিমলা থানায় আজ শুক্রবার(১২ জুলাই) দুপুরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। ওই নববধুর সঙ্গে টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের পূর্ব খড়িবাড়ী টাবুরচর এলাকায় শুকুর আলীর ছেলে সবুর আলীর ২৩ জুন বিয়ে হয়।
ঘটনার দিন বিকালে নববধুকে নিয়ে স্বামী সবুর আত্বীয়ের বাড়ীতে দাওয়াত খেয়ে রাত ১০টার দিকে বাড়ী ফিরছিল। পথে টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের পূর্ব খড়িবাড়ী কলোনীপাড়া নামক স্থানে তিস্তার ধারে ৫ বখাটে যুবক তাদের আটক করেন। এ সময় তিন বখাটে স্বামী সবুরকে আটক করে রেখে অপর দুইজন তার নববধু স্ত্রীকে বাঁশঝাড়ে নিয়ে ধর্ষনের চেস্টা চালায়। এলাকাবাসী বিষয়টি বুঝতে পেলে ছুটে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।
নববুধুর দায়ের করা অভিযোগ মতে টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের পূর্ব খড়িবাড়ী কলোনী পাড়া গ্রামের মাহাবুব হোসেনের ছেলে রেজাউর ইসলাম(৩০), হারুন ইসলামের ছেলে শফিকুল ইসলাম(২৮), জাফুর মামুদের ছেলে আব্দুর রউফ(২৬), মশিয়ার রহমানের ছেলে গিয়াস উদ্দিন(২৭) ও মেনহাজ আলীর ছেলে মতিউর রহমান(২২) তাদের গতিরোধ করে স্বামীকে আটক করে তাকে ধর্ষনের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে শ্লীলতাহানী ঘটনায়।
ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শুক্রবার দুপুরে অভিযোগ পেয়েছি বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email