মোদিকে উপযুক্ত শিক্ষা দেয়ার সময় এসেছে: ইমরান খান

 
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ১৪ আগষ্ট ।। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে প্রকাশ্য চ্যালেঞ্জ দিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, মোদিকে উপযুক্ত শিক্ষা দেয়ার সময় এসে গেছে। মোদির ছোড়া ইটের জবাব আমরা পাথর দিয়ে দেব।

পাকিস্তান ঘোষিত কাশ্মীর সংহতি দিবসে বুধবার মোজাফফরাবাদের অ্যাসেম্বলিতে দেয়া ভাষণে এ হুশিয়ারি দেন তিনি। খবর ডন ও জিয়ো নিউজ উর্দূর।

ইমরান খান বলেন, এই মূহুর্তে আরএসএস নামে ভয়ঙ্কর একটি মতবাদ আমাদের সামনে রয়েছে, যারা হিটলারের নাৎসি বাহিনীর আদর্শে অনুপ্রাণিত। আমিই প্রথম বিশ্ববাসীর সামনে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আসল চেহারা তুলে ধরেছি।

তিনি বলেন, “আরএসএস সদস্যরা মনে করে-‘মুসলমানরা তাদের ওপর কয়েকশ বছর শাসন করেছে। তাই এখন মুসলমানদের থেকে প্রতিশোধ নিতে হবে। কারণ তারা যদি আমাদের (হিন্দুদের) ওপর শাসন না করতো, তাহলে আমরা একটি শক্তিশালী গোষ্ঠীতে পরিণত হতাম’- এটিই আরএসএসের মতাদর্শ।”

ইমরান খান বলেন, এমন হিংসাত্মক মনোভাব ও মতাদর্শ নিয়ে বিগত কয়েক দশক আরএসএস বেশ তৎপর হয়েছে। বাবরি মসজিদ ধ্বংস এটির একটি অংশ ছিল। বিগত ৫ বছরে কাশ্মীর নিয়ে ভয়ঙ্কর পরিকল্পনা সাজিয়েছে।

কাশ্মীরে মোদি শেষ কার্ড খেলে ফেলেছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, আরএসএসের মিশন বাস্তবায়নে মোদি কাশ্মীরে তার শেষ কার্ড খেলে ফেলেছেন। আমি মনে করি এটি তার ঐতিহাসিক একটি ভুল। যার জন্য তাকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে।

কাশ্মীরি জনগণকে আশ্বস্ত করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন থেকে আমি স্বাধীন কাশ্মীরের দূত হিসেবে কাজ করব।

এর আগে বুধবার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দেয়া এক বিবৃতিতে পাকিস্তান কাশ্মীরি ভাইদের পাশে থাকবে বলে নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

সাবেক এ কিংবদন্তি ক্রিকেট তারকা বলেন, স্বাধীনতা দিবস মানুষের জন্য আনন্দের সুযোগ এনে দেয়। কিন্তু অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় দমনপীড়নের শিকার ভাইদের দুর্দশায় আমরা দুঃখ ভারাক্রান্ত।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
error: Content is protected !!