লালমনিরহাট বিমানবন্দরে হবে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়

 
 

লালমনিরহাট, ২৩ আগষ্ট ।। সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে। এটি আগামী ২০২০ সালে জানুয়ারীতে ক্লাস শুরু করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনার জন্য লালমনিরহাট বিমান বন্দর পরিদর্শন শেষে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।  এসময় মন্ত্রী’র সাথে ছিলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মুহাম্মদ কাদের।

তিনি আরো বলেন, এ বিমানবন্দরটি ব্যবহার করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবহেলিত এ অঞ্চলের উন্নয়নের স্বার্থে দেশের মধ্যে প্রথম এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা গ্রহন করেন। ইতোমধ্যে এ বিশ্বদ্যালয়ে ভিসি, প্রো-ভিসি ও রেজিস্টারসহ বেশ কিছু গুরুত্বপুর্ন পদে যোগ্যদের নিয়োগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যদিও ঢাকায় ক্লাস গুলো হবে ভবন নিমাণ হয়ে গেলে ক্লাস লালমনিরহাটে শুরু হবে। দেশে এই প্রথম একটি এভিয়েশন ও অ্যারেস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়ে এ্যায়ারকাফ্ট নির্মাণ, মেরামত, স্যাটেলাইট নির্মাণ, উৎক্ষেফোন, মহাকাশ গবেষণা প্রভৃতি প্রযুক্তির বিষয়ে গবেষণা করা হবে বলে জানা গেছে।

সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী নুুরুজ্জামান আহম্মেদ আরো বলেন, ২০২০ সালের জানুয়ারী মাসে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক পর্যায়ে পাঠদানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে। প্রাথমিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ৭টি ফ্যাকালটি, ৩৭টি ডিপার্টমেন্ট এবং ৪টি ইনস্টিটিউট নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে লালমনিরহাটেই এ বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হবে। তবে মুল ক্যাম্পাস হবে লালমনিরহাটের এ বিমানবন্দরে। আগামী ৩/৪ বছরের মধ্যেই পুরো ক্যাম্পাস নির্মান কাজ শেষ হলে পাঠদান এখানে চালু হবে। বিশ্ববিদ‌্যালয়ের মুল ক্যাম্পাস হবে লালমনিরহাটের এ বিমানবন্দরে। আগামী ৩/৪ বছরের মধ্যেই পুরো ক্যাম্পাস নির্মান কাজ শেষ হলে পাঠদান এখানে চালু হবে।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আরও বলেন,দীর্ঘদিন থেকে এ জেলার মানুরে দাবি যেন লালমনিরহাট বিমানবন্দরটি চালু করা হয়। সে ব্যাপারে বিমান বাহিনীর প্রাধানের সাথে কথা বলেছি। তিনি আশ্বাস দিয়েছেন। চলতি বছরের লালমনিরহাট বিমান বন্দর চালু করা হবে এবং সপ্তাহে ৩টি ফ্লাইট ওঠানামা করবে।

পরিদর্শনকালে বিমান বাহিনীর ঢাকাস্থ উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, লালমনিরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. মতিয়ার রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আহসান হাবীব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এন এম নাছির উদ্দিনসহ লালমনিরহাট বিমান বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক ও রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email