নওগাঁয় কমিউনিটি ক্লিনিকে দূর্বত্তের আগুন

 
 

নওগাঁ, ৩১ আগষ্ট ।। নওগাঁ সদর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নের ‘ধোপাইকুড়ী কমিউনিটি ক্লিনিকে’ আগুন দিয়ে ওষধ, আসবাবপত্র ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়িয়ে দিয়েছে দূর্বত্তরা। শুক্রবার রাত ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় প্রায় দুই লাখ টাকার মতো ক্ষতিসাধিত হয়েছে বলে জানান, কমিউনিটি ক্লিনিকের কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) মেহেদী হাসান। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে গ্রামের হতদরিদ্রা সেবা নিয়ে উপকৃত হয়ে থাকেন। কি কারণে কারা আগুন লাগিয়ে সরকারি সম্পদ বিনষ্ট করেছে খতিয়ে দেখে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সিএইচসিপি মেহেদী হাসান বলেন, বৃহস্পতিবার অফিস বন্ধ করে বাড়িত যান। শুক্রবার ছিল সাপ্তাহিক ছুটির দিন। শুক্রবার রাত ১টা ৫০ মিনিটে ক্লিনিকের পাশের বাড়ির বজলুর রশিদ আমাকে ফোন করে বলেন ক্লিনিকে আগুন লেগেছে। তখন বাবাকে সাথে নিয়ে ক্লিনিকে এসে দেখি তালা ভেঙে প্রবেশ করে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে দূর্বত্তরা। স্থানীয়রা আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। পরে নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে ক্লিনিকের দুইটি আলমিরাতে থাকা বিভিন্ন ওষধপত্র, চারটি টেবিল, ১২টি চেয়ার ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়ে যায়। আগুনে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তবে কি কারণে দূর্বত্তরা আগুন দিয়েছে তা জানেন না তিনি।

নওগাঁ সিভিল সার্জন ডা: মুমিনুল হক বলেন, ঘটনাটি খুবই দুংখজনক। ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ করা হবে। এছাড়া পৃথক ভাবে দুইটি তদন্ত করা হবে। একটি থানা পুলিশ এবং অপরটি আমরা নিজেরাই তদন্ত করব। তদন্তের পর বিষয়টি বুঝা যাবে আসল ঘটনা।

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কমিউনিটি ক্লিনিক দ্বারা গ্রামের সাধারন মানুষ উপকৃত হয়ে থাকে। কি কারণে দূর্বত্তরা আগুন দিয়েছে তার ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

Print Friendly, PDF & Email