কুড়িগ্রামে চুরির ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ আটক-৩

 
 

কুড়িগ্রাম, ২৩ সেপ্টেম্বর।। কুড়িগ্রামে উলিপুর উপজেলার দূর্গাপুর বাজারে আর এম ইলেক্ট্রনিক্স নামের একটি ওয়ালটন পণ্যের শো রুমে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ঐ উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল আলম কাজলসহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার বিকেলে আটককৃতদের জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দুর্গাপুর বাজারের ঐ ওয়ালটন শো-রুম গত শুক্রবার রাতে প্রতিদিনের ন্যায় বন্ধ করে মালিক রাফেল মাহমুদ বাড়ি চলে যায়। শনিবার সকালে দোকান খুলে শোরুমের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে। দোকান মালিক দ্রুত ক্যাশের টাকা খুঁজতে গিয়ে দেখেন ক্যাশে রাখা নগদ ২ লাখ ৮০ হাজার টাকাসহ দোকানে রাখা ২০টি এন্ড্রয়েড ফোন চুরি হয়ে গেছে। সংঘবদ্ধ চোরের দল ঐ শো-রুমের ঘরের চালের টিন খুলে চুরির ঘটনা ঘটায়। পরে দোকানে থাকা সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে চুরির সাথে জড়িত একজনকে সনাক্ত করে দোকান মালিক রাফেল মাহমুদ। এর তিনি চুরির ঘটনাটি উলিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করলে গত শনিবার মাদক ব্যবসায়ী হালিমুর রহমান দিগন্ত (২৪) কে ১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক করে পুলিশ। সে রাজারহাট উপজেলার বালাকান্দি গ্রামের খান মোহাম্মদের পূত্র। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দূর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল আলম কাজল (৩০) ও দূর্গাপুর নামাটারী গ্রামের মোজাফ্ফর আলীর পূত্র সুমন (২৮) কে আটক করে। ছাত্রলীগ সভাপতি আরিফুল আলম কাজল ঐ ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলমের পূত্র। কাজল একাধিক মামলার আসামী বলে জানিয়েছে। গতকাল রবিবার আটককৃতদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়েরের পর কুড়িগ্রাম জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়।এর একদিন আগে উলিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এনামুল হক কে গাঁজা সহ আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক তপন চন্দ্র রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, চুরির ঘটনায় ৩ জনকে আটক করে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উলিপুর উপজেলা শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রুবেল বলেন, কাজল চুরির সাথে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email