• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০১:৩৪ অপরাহ্ন |

আবরার হত‌্যা মামলার আসামী তানিমের বাড়ি সৈয়দপুরে

সিসি নিউজ, ৮ অক্টোবর।। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার মামলার আসামী এহেতসামুল রাব্বি তানিমের বাড়ি সৈয়দপুরের মুন্সিপাড়ায়। তাঁর বাবা আবু মো: কায়সার ওরফে পিন্টু পেশায় একজন ওষুধ ব‌্যবসায়ী। শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে (রংপুর রোড) ওষুধের দোকান। স্থানীয়রা জানায়, তার বাবা কোন রাজনৈতিক সংগঠনের সাথে জড়িত নেই। এক ছেলে ও এক মেয়ের মধ‌্যে তানিম বড়। সে এসএসসি ২০১৫ এবং এইচএসসি ২০১৭ সালে সৈয়দপুর সরকারী কারিগরী স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্র ছিল।

ছাত্রলীগের বুয়েট শাখার সদস‌্য তানিম তার বন্ধু ফাহাদকে খুনীদের কাছে নিয়ে যায় এবং হত্যার পর তার লাশ নিয়ে সিঁড়িতে ফেলা দেয়ার দৃশ‌্য সিসিটিভি ক‌্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে বলে তাঁর কলেজের সহপাঠিরা ফেসবুকে পোষ্ট দিয়েছে।
এ হত্যার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে ১১ জনকে বহিষ্কার করেছে ছাত্রলীগ। তারা হলেন- বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল, সহসভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, সাংগঠিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিওন, সাহিত্য সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, উপ-দফতর সম্পাদক মুজতবা রাফিদ, সদস্য মুনতাসির আল জেমি, এহেতসামুল রাব্বি তানিম ও মুজাহিদুর রহমান।
সোমবার রাতে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। শিবির সন্দেহে ছাত্রলীগের কর্মীরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা।
নিহত ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। তিনি থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে।
সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে হওয়া চুক্তি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়া কেন্দ্র করে রোববার রাতে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষের ভেতর ‘শিবির’ আখ্যা দিয়ে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ