• সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন |

১০ টাকা কেজিতে চাল পাওয়া যাবে ৭ মাস

Red Chilli Saidpur

সিসি ডেস্ক, ৩০ অক্টোবর।। কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেছেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠি বছরের ৭ মাস ১০ টাকা কেজি দরে চাল কিনতে পারবেন। আগে ৫ মাসের জন্য থাকলেও নতুন করে এটি ৭ মাস করা হচ্ছে। তবে গ্রাম পুলিশ বা চৌকিদাররা সারাবছরই ১০ টাকায় চাল কিনতে পারবেন।

বুধবার (৩০ অক্টোবর) সচিবালয়ে কৃষি প্রণোদনা কার্যক্রম সম্পর্কিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান কৃষিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, বর্তমানে ধানের দাম নিয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে। এবারো ধানের প্রচুর ফলন হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে ধানের দাম কত হবে, কিভাবে কৃষকদের আরো প্রণোদনা দেয়া যায় সে বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, বাজার থেকে অতিরিক্ত চাল সংগ্রহ করলে তা ছাড় করার বিষয়ও ভাবতে হবে। এসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে যেতে ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে জরুরি বৈঠকে বসবেন বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো বলেন, ১০ টাকা কেজিতে সরকার যে চাল দিচ্ছে তার পরিধি আরো ২ মাস বাড়ানো হবে। যাতে আরো বেশি মানুষকে দেয়া যায়। আগে বেশিরভাগই চাল কেনা হতো। এখন থেকে চালের পাশাপাশি ৬ থেকে ৭ লাখ টন ধানও কেনার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী। সরকারি গুদাম স্বল্পতার কারণে মিলারদের সম্পৃক্ত করে তাদের গুদামেই ধান রাখা হবে। এক্ষেত্রে ধান ভাঙানো ও রাখা বাবদ একটা খরচ দিয়ে দেয়া হবে তাদের।

কৃষকদের চালের ন্যায্য মূল্য দেয়ার জন্য স্থায়ী কোনো সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সরকার এ বিষয়ে চিন্তা করছে।

তিনি বলন, নতুন পেঁয়াজ যখন তোলা হয় তখন দাম অনেক কম থাকে। সেজন্য উত্তোলনের সময় আমদানি বন্ধ রাখা যায় কী না সে বিষয়েও চিন্তা করা হচ্ছে। এতে করে চাষীরা বিপাকে পড়বে না।

চাল রফতানির কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়েছে কিনা জানতে চাইলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে চালের দাম কমে যাওয়ায় চাল রফতানি করা যাচ্ছে না। যেমন ফিলিপাইনের সঙ্গে এমওইউ স্বাক্ষর করেও সেখানে পাঠানো যাচ্ছে না। কারণ সেখানেও ধানের উৎপাদন বেশি হয়েছে। ভুটান কিছু ধান নেয়ার চাহিদা জানিয়েছে, সেখানে যোগাযোগ করা হবে বলে জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য বন্ধ আছে।

আর্কাইভ