আস্ত পাহাড় বানাচ্ছে আমিরাত

 
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২ নভেম্বর।। এর আগে বিশ্বের সব চেয়ে উঁচু ভবন বুর্জ খলিফা এবং পাম গাছের আকারে তৈরি আস্ত একটা দ্বীপ পাম জুমেইরা তৈরি করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে তারা। এবার নাকি একেবারে পাহাড় তৈরি করার চিন্তা করছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। বৃষ্টি নিয়ে আসতেই নাকি এ ধরনের চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে তাদের।

জানা গেছে, আমিরাতজুড়ে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়াতে কৃত্রিম পাহাড় বানানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। আর সেই পরিকল্পনা নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে মার্কিন সংস্থা ন্যাশনাল সেন্টার ফর অ্যাটমোসফেরিক রিসার্চ। কী ধরনের পাহাড় তৈরি করলে আবহাওয়ায় কী ধরনের প্রভাব পড়তে পারে, তা নিয়েই চলছে আলোচনা।

কত উঁচু হবে, কেমন ধরনের ঢাল থাকবে; সেগুলোও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গবেষণার পর রিপোর্ট দেওয়া হবে, তার ভিত্তিতেই শুরু হবে কাজ।

অবশ্য বৃষ্টিপাতের জন্য পাহাড় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাধারণত পাহাড়ের একটি ঢালে বৃষ্টি হয় ও অপর দিক শুকনো থাকে। মধ্যপ্রাচ্যে বৃষ্টি একটা বড় সমস্যা। গ্রীষ্মে খুব হাতে গোনা কয়েকদিনই বৃষ্টি হয় এ দেশে।

ফলে বিভিন্ন জায়গায় ক্রমশ পানির সমস্যা তৈরি হতে শুরু করেছে। গত কয়েক বছরে বৃষ্টির জন্য কৃত্রিম ব্যবস্থা করতে বিপুল পরিমাণ খরচ করা হয়েছে। কৃত্রিম মেঘ তৈরি করার ফলে গত বছর ২৪ ঘণ্টায় প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়, একপর্যায়ে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

এমনকি বিমান পর্যন্ত বাতিল করতে হয়েছে। কিন্তু পাহাড় তৈরি করলে পরিমিত বৃষ্টি হবে। ১.২ মাইল উচ্চতার পাহাড় তৈরি করতে মোটামুটি ২৩ হাজার কোটি ডলার খরচ হবে। এছাড়া এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে এরই মধ্যে চার লাখ ডলার খরচ করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

Print Friendly, PDF & Email