• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে যুবককে পিটিয়ে হত‌্যার ঘটনায় দুই জন গ্রেফতার

সিসি নিউজ, ১২ নভেম্বর।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাইসাইকেল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোহেল নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মো. ফয়সাল (১৫) ও সুরুজ (১৭) নামে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে তাদের নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ফয়সাল শহরের মুন্সিপাড়ার কুরবান ওরফে কাল্লুর পুত্র এবং সুরুজ ওয়াপদা মোড়ের ছদরুল হাসানের পুত্র।

পুলিশ জানায়, আসামীরা আদালতে দেয়া ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে তার দোষ স্বীকার করেছে। আদালতের বিচারক সুরুজকে জেলহাজতে এবং ফয়সালের বয়স কম হওয়ায় যশোরের শিশু সংশোধনাগারে পাঠিয়েছে।

উল্লেখ্য, নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের চাঁদনগর মহ্ল্লার মো. সহিদুল ইসলামের ছেলে মো. সোহেল (২৫)। সে সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীতে আলম তাঁরকাটা ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের কাজ করতো। ঘটনার দিন গত ৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় তাঁর চুরি যাওয়া বাইসাইকেলের খোঁজে বের হয় সে (সোহেল)। এর এক পর্যায়ে শহরের খেঁজুরবাগ এলাকার জনৈক কাল্লুর চার ছেলে সনু, ফয়সাল, জনি ও রকিসহ অজ্ঞাত ১৫/২০ জন বখাটে যুবক মিলে তাকে এলোপাতারি বেদম মারপিট করে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। এরপর প্রথমে তাকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে এবং পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৭ নভেম্বর ভোর সাড়ে ৫টায় সোহেলের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত যুবক মো. সোহেলের বাবা মো. সহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাতে সৈয়দপুর থানায় ওই মামলাটি দায়ের করেন। এতে চারজনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাত আরো ১৫/২০ জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলার যে সব আসামীর নাম উল্লেখ করা হয়েছে, তারা হচ্ছে শহরের মুন্সিপাড়া খেঁজুরবাগ এলাকার ইলেকট্রিক মিস্ত্রী মো. কাল্লুর ছেলে রকি (২৩), সনু (২৫), জনি (২৭) এবং ফয়সাল (১৫)।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল হাসনাত খান জানান, সোহেলের সাইকেল চুরির বিষয়টি সত‌্য কিন্তু আসামীদের স্বীকারোক্তি মতে ওই দিনের মারপিটের ঘটনাটি ছিল নারীকে কেন্দ্র করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ