এসএ গেমসে চতুর্থ স্বর্ণ জয়ী অন্তরা

 
 

সিসি ডেস্ক, ৩ ডিসেম্বর।। কাঠমাণ্ডুতে এশিয়ান গেমসে (এসএ) কারাতে ৬১ কেজি কুমিতে মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) চতুর্থ স্বর্ণ পদক জেতেন হুমায়রা আক্তার অন্তরা। এনিয়ে বাংলাদেশ চারটি সোনার পদক পেল। দুপুরে এ রিপোর্ট লেখা অবধি, আজ পেয়েছে তিনটি স্বর্ণ পদক।

সোমবার (০২ ডিসেম্বর) সকালে বাংলাদেশকে প্রথম পদক এনে দিয়েছিলেন অন্তরা। তবে সেটি ছিল ব্রোঞ্জ। কারাতের কাতা একক ইভেন্টে তৃতীয় হয়ে ব্রোঞ্জ জেতেন তিনি।

কাঠমাণ্ডুতে এশিয়ান গেমসে (এসএ) মঙ্গলবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে বাংলাদেশকে সোনা জেতান আল আমিন। দেশের তৃতীয় এবং দিনের দ্বিতীয় স্বর্ণ জিতেছেন বাংলাদেশের আরেক খেলোয়াড় মারজানা আক্তার পিয়া।

এসএ গেমসে দেশের পক্ষে তৃতীয় সোনার পদক আসে মেয়েদের কারাতে ইভেন্টে। মেয়েদের অনূর্ধ্ব-৫৫ কেজি কুমি ইভেন্টে সোনা জিতেছেন মারজানা। সোনা জয়ের লড়াইয়ে ফাইনালে পাকিস্তানের কায়সার সানাকে ৪-৩ পয়েন্টে হারিয়েছেন মারজানা। তার আগে ২-১ পয়েন্টে নেপালের মানিশ চৌধুরীকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিলেন তিনি।

এর আগে কারাতের পুরুষ একক অনূর্ধ্ব-৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে সেরা হয়েছেন বাংলাদেশের আল আমিন। দুটি ইভেন্টের ফাইনালেই পাকিস্তানের প্রতিযোগীদের হারিয়েছেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। এছাড়া, কারাতের ৬৭ কেজি ওজন শ্রেণিতে রুপা জিতেছেন সেনাবাহিনীর ফেরদৌস।

তবে, সেরা পুরস্কার সোনা জয়ের সুখবর দেন দিপু চাকমা। তায়কোয়ান্দোতে এই পুরস্কারটি জেতেন তিনি। দিপু ছাড়াও তায়কোয়ান্দো থেকে এদিন আরো দুটি ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ।

এবার সর্বোচ্চ পদক জয়ের আশা নিয়ে নেপাল গিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদরা। বাংলাদেশ এবার পাঠিয়েছে ৫৯৫ সদস্যের বিশাল বহর। এদের মধ্যে ক্রীড়াবিদ ৪৬২ জন এবং কর্মকর্তা ১৩৩ জন। একটি ডিসিপ্লিন (ট্রাইলথন) বাদে বাকি সবকটিতে অংশ নিচ্ছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এবারে ২৬টি ডিসিপ্লিনের মধ্যে ২৫টিতে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। এই আসরে বাংলাদেশের পদক বিজয়ী প্রত্যেক ক্রীড়াবিদের জন্য আর্থিক পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

Print Friendly, PDF & Email