• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন |

পুলিশ হেফাজতে রুম্পার বয়ফ্রেন্ড

ঢাকা, ৮ ডিসেম্বর ।। স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা হত্যাকাণ্ডে তার সাবেক প্রেমিক সৈকতে হেফাজতে নিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) আনুমানিক রাত পৌনে নয়টায় তাকে গোয়েন্দা পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

ডিএমপির অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন বিভাগ) ওবাইদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলিশ হেফাজতে নেওয়া ব্যক্তির নাম সৈকত। তিনি বর্তমানে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা অফিসে রয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদ করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি দক্ষিণ বিভাগ) উপ-কমিশনার (ডিসি) রাজিব আল মাসুদ গণমাধ্যমকে বলেন, তাকে আটক করা হয়নি। রুবাইয়াত শারমিন রুম্পার মৃত্যুর ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে।

রুম্পার সহপাঠী ও স্বজনরা জানিয়েছেন, রুম্পার বয়ফ্রেন্ড সৈকতের কথা। হত্যাকাণ্ডে সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা থাকার বিষয়ে অনেকে সৈকতের দিকে আঙুল তুলছেন।

হবিগঞ্জে কর্মরত রুম্পার বাবা ইন্সপেক্টর রোকন উদ্দিন বলেন, আমি অনেক কষ্ট করে রুম্পাকে স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করেছিলাম। কিন্তু এভাবে তার মৃত্যু হবে আমি ভাবতে পারিনি। নুসরাত হত্যার মামলার মতো দ্রুত বিচার দাবি করেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার রাত সোয়া ১০টার দিকে সিদ্ধেশ্বরীর সার্কুলার রোডের ৬৪/৪ নম্বর বাড়ির সামনের রাস্তা থেকে রুম্পার লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ পড়ে ছিল দুটি ভবনের পেছনে এবং একটি ভবনের সামনের গলিতে। তিনটি ভবনের যে কোনো একটি থেকে তাকে ফেলে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ তাদের জানিয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ