• বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:১৭ অপরাহ্ন |

‘জয় বাংলা’ শ্লোগান ছিল মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা

দিনাজপুর, ১৫ ডিসেম্বর ।। সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় জয় বাংলা শ্লোগান মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা ও শক্তি যুগিয়েছিল। এ শ্লোগান দিয়ে যুদ্ধ করে আমরা পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে পরাজিত করে বিজয় অর্জন করেছি। সম্প্রতি হাইকোর্ট জয় বাংলাকে জাতীয় শ্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন।

শনিবার বিকেলে দিনাজপুর হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে ‘দিনাজপুর মুক্ত দিবস পালন পরিষদ’ এর আয়োজনে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে আলোচনা সভায় এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ৩০ লক্ষ মানুষের রক্তের ও ২ লক্ষ ৬৯ হাজার মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে আমাদের অর্জিত স্বাধীনতা। আর এই স্বাধীনতা অর্জন করা সম্ভব হয়েছে যারা লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়েছিলেন তাদের চেতনায় ছিল স্বাধীনতা, হৃদয়ে ছিল বঙ্গবন্ধু ও কণ্ঠে ছিল জয় বাংলা। বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই মুক্তিযুদ্ধের সাথে পরিচিত না। মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস যদি এই নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা হয়, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে তারা যদি সম্মুখ ধারনা লাভ করে তবে ভবিষ্যতে কখনো জামায়াতের সাথে গাটবাধা কোনো জোট এদেশের ক্ষমতায় আসীন হতে পারবে না।

দিনাজপুর মুক্ত দিবস পালন পরিষদ এর আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি অ্যাড. জাকিয়া তাবাসসুম জুই, জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন।

আলোচনাসভা পরিচালনা করেন দিনাজপুর মুক্ত দিবস পালন পরিষদ এর যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল। আলোচনা সভার শুরুতে জাতীয় সংগীতের তালে তালে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ