সরকারের এক নম্বর দায়িত্ব নারীর নিরাপত্তা: ড. কামাল

 
 

ঢাকা, ১১ জানুয়ারী।। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, যারা সরকার পরিচালনায় করার দায়িত্ব নেন, তাদের এক নম্বর দায়িত্ব হলো জান-মালের নিরাপত্তা ও নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। সেখানে যে তারা ব্যর্থ হচ্ছে, সেটা পত্রিকা খুললে প্রত্যেক পাতায় পাওয়া যায়।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসহ সারাদেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ’ শীর্ষক এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন।

ধর্ষণের কথা উল্লেখ করে ড. কামাল হোসেন বলেন, কোন দলীয় চিন্তাধারা থেকে বলছি না। আজকে সব দলের মানুষকে ডেকেছি। আজকে আমরা জনগণের ঐক্য চাই। আর ৫ দল, ৭ দল ও ১০ দল নয়, আজকে সারা দেশের সমস্ত মানুষের ঐক্য চাই।

তিনি বলেন, আমি আশার আলো দেখছি। কারণ সাংবাদিক ভাইয়া যেভাবে এগিয়ে আসছেন। তাই বলি নিরাশ হওয়া কারণ নেই, আসুন ধর্ষণের ব্যাপারে আমরা ঐক্যবদ্ধ হই।

ড. কামাল বলেন, আমরা চাই এটা (ধর্ষণ) বন্ধ হোক। আর না হলে সরকার বলবে, আমরা পারি না, পারলাম না। তাহলে জনগণকে সুযোগ দেন যাতে তারা যোগ্য সরকার গঠন করতে পারে।

তিনি বলেন, দেশে প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র নাই। সংসদ আছে বলা হয়। কিন্তু সেখানে কি এগুলো (ধর্ষণ) নিয়ে আলোচনা হচ্ছে?

গণফোরাম সভাপতি বলেন, ধর্ষণ মহামারী আকার ধারণ করবে, এটা কল্পনাও করা যায় না। শুধু ঢাকা এবং চট্রগ্রামে নয়, জেলায়-জেলায় ধর্ষণের কথা! কেনো? আমাদের আইনশৃঙ্খলার ঘাটতি আমাদের গভীর উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। তবে এখানেও আশার দেখি। কারণ আজকে মানুষ রুখে দাঁড়াচ্ছে।

ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

Print Friendly, PDF & Email