• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন |

‘নতুন মালিঙ্গা’র বলের গতি ১৭৫ কিলোমিটার?

খেলাধুলা ডেস্ক ।। কয়েকমাস ধরেই ক্রিকেট দুনিয়ায় উত্থান ঘটেছে এই তরুণ পেসারের। অ্যাকশন আর গতিতে মিল থাকায় যাকে তুলনা করা হচ্ছে কিংবদন্তি পেসার লাসিথ মালিঙ্গার সঙ্গে। তিনি হলেন শ্রীলঙ্কার ১৭ বছর বয়সী পেসার মাথিসা পাথিরানা। দক্ষিণ আফ্রিকায় চলতি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে তার একটি বলের গতি দেখানো হয়েছে ঘণ্টায় ১৭৫ কিলোমিটার, মাইলের হিসেবে যা ১০৮ মাইল! এই ঘটনার পর ক্রিকেট বিশ্বে বেশ আলোচনার ঝড় তুলেছে কিন্তু কীভাবে এত গতি তুলেছেন মাথিসা? এটা কি আদৌ সম্ভব?

ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয় দ্রুতগতির ডেলিভারিটি করেছিলেন পাকিস্তানের ‘পেসার দ্য গ্রেট’ শোয়েব আখতার। ২০০৩ সালে কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৬১.৩ কিলোমিটার গতির আগুনের গোলা ছেড়েছিলেন রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস। সেটিই এখন পর্যন্ত বিশ্বরেকর্ড। অস্ট্রেলিয়ান শন টেইট আর ব্রেট লি ১৬০ কিলোমিটার ছুঁলেও শোয়েবকে পেছনে ফেলতে পারেননি। এবার ১৭ বছর বয়সী লিকলিকে পেসার গতি তুলবেন ১৭৫ কিলোমিটার! বিষয়টা হজম করাটা কষ্টকর বটে।

স্পিড গানে দেখানো গতি যদি সত্যি হয়, তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে কোনো লেভেলে এটি সবচেয়ে দ্রুতগতির ডেলিভারি ছিল। কিন্তু অনেকেই এটা বিশ্বাস করছেন না। তাদের মতে এটা সম্প্রচারের ভুল। গত বছরও যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাজী অনিকের একটি ডেলিভারি ১৬০ কিলোমিটার দেখিয়েছিল স্পিড গানে। পরে জানা যায়, সেটি হয়েছে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে। মাথিসা পাথিরানার ডেলিভারিটি নিয়ে এমনই কিছু হয়েছে বলে ধারণা ক্রিকেটবিশ্বের। তবে এই তরুণের সামর্থ নিয়ে সন্দেহ নেই কারও।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ