• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন |

সহপাঠীর আত্মহত্যার বিচার দাবিতে সড়ক অবরোধ

নীলফামারী, ৩ ফেব্রুয়ারি॥ সহপাঠীর আত্মহত্যার ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের বিচার দাবি করে এসএসসি পরীক্ষা শেষ করে নিজ বিদ্যালয়ের সামনে দুই ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। এ সময় এলাকাবাসীও এতে অংশ নেয়।
আজ সোমবার দুপুরে নীলফামারী ডোমার উপজেলার মাহিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, ওই স্কুলের বানিজ্য বিভাগের পরীক্ষার্থী তৃষ্ণা রায়(১৫) মানবিক বিভাগের প্রবেশপত্র পেয়ে গতকাল রবিবার বিকালে নিজবাড়িতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। মেয়েটি উপজেলার বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের আট নম্বর ওয়ার্ডের দোদিপাড়া গ্রামের দিনমজুর দুলাল রায়ের মেয়ে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ ২৮ জানুয়ারী প্রবেশপত্র বিতরনের শেষ দিন ছিল। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ সেটি পরীক্ষার আগের দিন রবিবার দুপুরে পরীক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়। এ জন্য বাড়তি দুইশত করে টাকাও নেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ।
বানিজ্য বিভাগের প্রবেশ পত্র না পাওয়ায় প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম কাছে গেলে তৃষ্ণা রায়কে গালমন্দ করে তাড়িয়ে দেয় প্রধান শিক্ষক। ফলে সে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয় বলে শিক্ষাথীদের অভিযোগ। তাই এসএসসি পরীক্ষা শেষ করেই সহপাঠিরা বিদ্যালটির সামনে ডোমার-চিলাহাটি সড়কটি প্রায় দুই ঘন্টা অবরোধ করে রাখে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেলে শিক্ষার্থীরা এসময় জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাকেরিনা বেগমের কাছে প্রধান শিক্ষকের বিচার ও স্কুল থেকে অপসারনের দাবি করে। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তদন্তের মাধমে দ্রুত দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে জানালে শিক্ষার্থীরা দুই ঘন্টা পর সড়ক অবরোধ তুলে নেয়।ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

তবে এ ঘটনায় উপজেলা প্রশাসন ৩ সদস‌্য এবং জেলা শিক্ষা অফিস ২ সদস‌্য বিশিষ্ট পৃথক পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী তিন দিনের মধ‌্যে তদন্ত কমিটি তাদের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ