• মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১১:২৮ অপরাহ্ন |

ঢাবির বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীর নাম প্রকাশ

Red Chilli Saidpur

সিসি ডেস্ক, ৫ ফেব্রুয়ারী।। ভর্তি জালিয়াতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে বহিষ্কৃত ৬৩ শিক্ষার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাবি প্রক্টরের কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের ওই ৬৩ শিক্ষার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

এর আগের দিন সোমবার দুপুরে আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশ না করলে প্রক্টর অফিসে তালা দেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ডাকসু সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

বহিষ্কৃতরা হলেন:

শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের মো. আব্দুল ওয়াহিদ (২০১৫-১৬), মোঃ ইছাহাক আলী (২০১৫-১৬), আনিকা বৃষ্টি (২০১৬-১৭), ফিওনা মহিউদ্দিন মৌমি (২০১৬০১৭)।

সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের সালমান এফ রহমান হৃদয় (২০১৫-১৬), ইসরাত জাহান ছন্দা (২০১৫-১৬), মোঃ রাকিবুল হাসান (২০১৬-১৭), সৌভিক সরকার (২০১৫-১৬), মোঃ মেহেদী হাসান (২০১৫-১৬), মো. হাসিবুর রশিদ (২০১৫-১৬), মোঃ মারুফ হাসান খান (২০১৫-১৬)।

আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের সাফায়াতে নুর সাইয়ারা নোশিন (২০১৬-১৭), ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট এন্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজ ইনস্টিটিউটের জি এম রাফসান কবির (২০১৬-১৭), পরিসংখ্যান বিভাগের মোঃ আবু জুনায়েদ সাকিব (২০১৪-১৫), তড়িৎ ও ইলেক্ট্রনিক কৌশল পূর্বতন বিভাগ, ফলিত পদার্থবিজ্ঞান, ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মোস্তাফিজ-উর-রহমান (২০১৩-১৪)।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শরমিলা আক্তার আশা ( ২০১৬-১৭), মো. লাসর রহমান লাভলু (২০১৫-১৬), জাকিয়া সুলতানা (২০১৬-১৭)।

অর্থনীতি বিভাগের সামিয়া সুলতানা (২০১৬-১৭), সিনথিয়া আহমেদ (২০১৬-১৭), জান্নাত সুলতানা (২০১৬-১৭)।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের মোঃ আশরাফুল ইসলাম আরিষ (২০১৬-১৭), আমরিন আলম জুটি ( ২০১৫-১৬)।

টেলিভিশন, ফিল্ম এন্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের মেহেজাবিন অনন্যা (২০১৬-১৭), সমাজবিজ্ঞান বিভাগের মোছাঃ আফসানা নওরিন ঋতু ( ২০১৬-১৭), ইতিহাস বিভাগের ফাতেমা আক্তার তামান্না (২০১৭-১৮)।

বাংলা বিভাগের এম ফাইজার নাঈম (২০১৫-১৬) জিয়াউল ইসলাম (২০১৬-১৭), ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের তাজুল ইসলাম সম্রাট (২০১৬-১৭), নুরুল্লাহ (২০১৬-১৭), ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মোঃ মাসুদ রানা (২০১৫-১৬), ফাতেমা তুজ জোহরা(২০১৬-১৭) মোঃ সাবিরুল ইসলাম(২০১৫-১৬)।

ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ইফতেখারুল আলম জিসান(২০১৭-১৮), নাফিসা তাসনিম(২০১৬-১৭), বিশ্বধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের শাশ্বত কুমার ঘোষ (২০১২-১৩), তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগের তৌহিদুল হাসান আকাশ(২০১৬-১৭), ফিন্যান্স বিভাগের শেখ জাহিদ হোসেন ইমন(২০১৬-১৭), ফার্মেসি বিভাগের মোহাম্মদ সাইদুর রহমান(২০১২-১৩), আব্দুর রহমান(২০১৬-১৭), আইন বিভাগের সুবহা লিয়ানা তালুকদার (২০১৬-১৭), আজলান শাহ(২০১৬-১৭), মনোবিজ্ঞান বিভাগের বেলাল হোসেন(২০১৩-১৪), মোরশেদা আক্তার (২০১৬-১৭), তানজিলা সুলতানা (২০১৬-১৭)।

শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের মাসুদ রানা(২০১৬-১৭), স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের রায়হান ফারুক(২০১৬-১৭), পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের আবুল কালাম আজাদ(২০১৪-১৫) রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের জেরিন হোসাইন (২০১৬-১৭), আবির হাসান হৃদয় (২০১৬-১৭), আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের নওশিন আফরিন মিথিলা (২০১৭-১৮), আল আলামিন পৃথক (২০১৬-১৭), টেলিভিশন ফিল্ম এন্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের মো. সাদমান শাহ(২০১৬-১৭)।

সংস্কৃত বিভাগের শিহাব হাসান খান(২০১৬-১৭), ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সাদিয়া সুলতানা(২০১৬-১৭), বিশ্বধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের সাদিয়া মিগমা (২০১৫-১৬) যোগাযোগ বৈকল্য বিভাগের মো. আবু মাসুম(২০১৬-১৭), রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের শাহৎ আল ফেরদৌস ফাহিম (২০১৬-১৭), ফিন্যান্স বিভাগের মো. আশেক মাহমুদ জয় (২০১৬-১৭), মার্কেটিং বিভাগের মাহবুব আলম সিদ্দিকী সম্রাট (২০১৭-১৮), আইন বিভাগের সালমান হাবিব আকাশ (২০১৬-১৭), মনোবিজ্ঞান বিভাগের মশিউর রহমান(২০১৩-১৪)।

উল্লেখ্য, গত ৩০ জানুয়ারি ভর্তি জালিয়াতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৩ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। কিন্তু বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীদের নাম প্রকাশ করা হয়নি দীর্ঘদিন ধরে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এ বিষয়ে রাজি থাকলেও প্রক্টরের অনীহায় এ তালিকা প্রকাশ করা হচ্ছে না বলে জানা যায়। যা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন ঢাবি প্রক্টর। অবশেষে সেই তালিকা প্রকাশ করা হলো।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য বন্ধ আছে।

আর্কাইভ