• সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে গৃহবধূর গলা কেটে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামী গ্রেপ্তার

Red Chilli Saidpur

সিসি নিউজ, ১২ ফেব্রুয়ারী।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে নিজ বাড়িতে গৃহবধূ সুরভী ইসলাম পপিকে (৩৫) গলা কেটে জবাই করে হত্যাচেষ্টা মামলার পলাতক দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উপজেলার গোলাহাট ঘোড়াঘাট এলাকায় গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর রাতে তাকে নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে গলা কেটে জবাই করে হত্যার চেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা।

রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি চাপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার পৃথক পৃখক স্থান থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে সৈয়দপুরের ঘোড়াঘাট এলাকার মো. মুন্নার ছেলে জীবন (১৯) এবং মৃত. সাগিরের ছেলে রাজা (১৫)।

পরদিন ১০ ফেব্রুয়ারি তাদের নীলফামারী আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে তারা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। পরে তাদের নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়।

সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল গৃহবধূ পপিকে জবাই করে হত্যাচেষ্টা মামলার পলাতক দুই আসামীকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

প্রসঙ্গত, সৈয়দপুর শহরের গোলাহাট ঘোড়াঘাট এলাকার বাসিন্দা ও পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হিটলার চৌধুরী ভলুর স্ত্রী সুরভী ইসলাম পপি (৩৫)। গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর রাতে তাকে নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে গলা কেটে জবাই করে হত্যার চেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় হিটলার চৌধুরী ভলু বাদী হয়ে ওই দুইজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সৈয়দপুর থানায় একটি হত্যাচেষ্টার মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর আসামীরা গা ঢাকা দেয়। এসময় আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের গড়িমসির অভিযোগ ওঠে।

এ অবস্থায় বাদী নিজ প্রচেষ্টায় সুকৌশলে আসামীদেরকে তার বাড়ীতে নিয়ে আসেন। পুলিশ এ খবর পেয়ে তৎকালীন ওসি মো. শাহাজাহান পাশার নেতৃত্বে বাদীর বাড়িতে হাজির হলে আসামী হস্তান্তর নিয়ে পুলিশের সাথে হিটলার চৌধুরীর বাক-বিতন্ডা শুরু হয়্। বাদী ও পুলিশের মধ্যে এসময় ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। এরই এক ফাঁকে এজাহারভুক্ত আসামী জীবন ও রাজা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সেসময় সংবাদ সম্মেলনও করেন বাদী হিটলার চৌধুরী। যদিও সৈয়দপুর থানার তৎকালীর ওসির অভিযোগ ছিল, বাদী দুই আসামীকে তার বাড়ীতে এনে পুলিশে সোপর্দ না করে গোপন বৈঠক করছিলেন।

ওই ঘটনার পর থেকে আসামী জীবন ও রাজা পলাতক থাকে। এ অবস্থায় সৈয়দপুর থানা পুলিশ পলাতক দুই আসামীদের গ্রেপ্তারে বিভিন্ন সোর্স নিয়োগ করাসহ নানা তৎপরতা শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় ওই দুজনকে এদিন গ্রেপ্তার করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ