• রবিবার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ১২:৫০ অপরাহ্ন |

চীনে আটকে পড়াদের ফেরালে ঝুঁকি বাড়বে বাংলাদেশের

Red Chilli Saidpur

সিসি ডেস্ক।। চীনের হুবেই প্রদেশে আটকে পড়া ১৭১ বাংলাদেশিকে দেশে ফেরালে কভিড-১৯ সংক্রামণের ঝুঁকি বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত লি জিমিং। তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বার্থেই তাদের দেশে আনা উচিত হবে না।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ডিক্যাব) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।
চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেন, শুধু উহানে নয়, হুবেই প্রদেশের বিভিন্ন শহরে রয়েছেন ১৭১ বাংলাদেশি। তবে এখনই তাদের বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনা উচিত হবে না। বাংলাদেশের স্বার্থেই এটা করা উচিত হবে না। কেননা তারা এখানে এলে ঝুঁকি তৈরি হতে পারে। চীন থেকে জাপানে একজন নাগরিক ফিরে যাওয়ায় দেশটিতে ঝুঁকি তৈরি হয়েছিল। সেখান থেকে সবার শিক্ষা নিতে হবে।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের নাগরিকরা সেখানে (চীনে) সুরক্ষিত আছেন।

প্রাণঘাতী কভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের পর সম্প্রতি চীনের উহান প্রদেশ থেকে ৩১২ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হয়। লি জিমিং পরামর্শ দিয়ে বলেন, কভিড-১৯ সংক্রামণ প্রতিরোধে চীন থেকে কোনো বাংলাদেশি এলে তাকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে। বাংলাদেশে থাকা নাগরিকদের আপাতত চীন ভ্রমণ থেকে বিরত থাকারও পরামর্শ দেন তিনি।

চীনসহ সারা বিশ্বেই আতঙ্ক ছড়াচ্ছে কভিড-১৯। গত ডিসেম্বরে এ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী প্রথমে শনাক্ত হয় চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে। ইতোমধ্যে এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ১৭শ ৭৫ জনে। চীনসহ ৩১টি দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ হাজারের বেশি।

এ সময় চীনের রাষ্ট্রদূত অভিযোগ করেন কভিড-১৯ চীনের সৃষ্টি বলে পশ্চিমা বিশ্বের গণমাধ্যমগুলো অপপ্রচার চালাচ্ছে। তিনি বলেন, এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা নিয়ে চীন সরকার স্বচ্ছতা বজায় রাখছে। এ নিয়ে বিভ্রান্ত সৃষ্টির কোনো সুযোগ নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ