• মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ১০:১৩ অপরাহ্ন |

বিরলে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, গুলিতে নিহত ১

Red Chilli Saidpur

দিনাজপুর, ২৬ মার্চ ।। দিনাজপুরের বিরলে বকেয়া বেতনের দাবিতে আন্দোলনরত রুপালী বাংলা জুট মিলের শ্রমিকরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। এ সময় পুলিশের গুলিতে এক চা দোকানদার নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৩ পুলিশসহ ১৩ শ্রমিক।

বুধবার রাত নয়টায় দিনাজপুরের বিরল উপজেলার রুপালী বাংলা জুট মিল চত্বরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত সুরত আলী মিলের পাশেই চা বিক্রি করতেন। হুসনা মোড়ের মোহাম্মদ আলীর ছেলে সুরত।

মিলের আন্দোলনরত শ্রমিকরা জানান, বুধবার বিকালে কোনো নোটিশ ছাড়াই রুপালী বাংলা জুট মিল কর্তৃপক্ষ মিল বন্ধ করে দেয়। এ ঘটনায় বিক্ষব্ধ হয়ে উঠে শ্রমিকরা। তারা বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে সন্ধ্যার পর থেকে মিল গেটে সমবেত হতে শুরু করেন।

রাত সাড়ে আটটার দিকে রুপালী বাংলা জুট মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আব্দুল লতিফ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু শ্রমিকরা তাদের বকেয়া বেতন চেয়ে শ্লোগান দিতে থাকেন।

একপর্যায়ে শ্রমিকদের দাবি মেনে না নিয়ে আব্দুল লতিফ ঘটনাস্থল ত্যাগ করার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা আরও উত্তেজিত হয়ে ভাঙচুর শুরু করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষ শুরু হয়।

সংঘর্ষের সময় পুলিশের গুলিতে ঘটনাস্থলেই সুরত আলী (৩০) নামে এক চা দোকানদার নিহত হয়। আহত হয় তিন পুলিশসহ আরও ১৩ জন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসিম হাবিব। তিনি জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১২ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। এ ঘনটায় আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য।

জুট মিলের রাজ কুমার নামে এক শ্রমিকের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং রায়হান (১৯) ইব্রাহিমসহ অন্যদের স্থানীয় বিরল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ