• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ০৮:২৩ অপরাহ্ন |

না খেয়ে দিন কাটছে অন্ধ রুপভানের

Red Chilli Saidpur

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) ।। ৭০ বছরের বৃদ্ধা রুপভান। থাকেন নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার ভবানীপুর বাজার সংলগ্ন টিনের ছাউনি ঘেরা ছোট্ট একটি ঝুপড়ি ঘরে। সেই ঝুপড়ি ঘরে গত কয়েক বছর ধরে বসবাস করছেন তিনি। স্বামী মছির প্রামানিক মারা গেছেন প্রায় ৩০ বছর আগে। বয়সের ভারে অন্ধত্ব বরণ করায় এখন আর কাজ করতে পারেন না। থাকেন স্বামী পরিত‌্যক্তা এক মেয়ের কাছে। মেয়েটি বিভিন্ন জনের বাড়িতে কাজ করে তা দিয়েই চলে তাদের জীবন যাত্রা।

শুধু রুপভানই নন, ওই এলাকার কয়েকটি পরিবারের একই অবস্থায় দিন কাটছে। করোনায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে তাদের জীবন ধারণ। খেয়ে না খেয়ে দিন কাটছে তাদের।

সারা দেশের মতো নওগাঁর আত্রাইয়েও চলছে অঘোষিত লকডাউন। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন দিনমজুরসহ নিম্নআয়ের মানুষ। সরকারের পক্ষ থেকে ত্রাণসামগ্রী দিলেও তা পর্যাপ্ত না হওয়ায় অনেকেই পাচ্ছেন না।

এ ব্যাপারে বৃদ্ধার মেয়ে রুবি বলেন, প্রতিদিনই ত্রাণের অপেক্ষায় থাকেন তারা। অনেকেই ত্রাণ পেলেও আমরা ত্রাণ পায়না। করোনা ভাইরাসের কারণে কাজের জন্য বাইরে কোন জায়গায় যেতে পারি না। কোন কাজও করতে পারছিনা বৃদ্ধা মাকে নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছি।

বৃদ্ধা রুপভান অশ্রুসিক্ত কন্ঠে বলেন, করোনা ভাইরাসে আমরা মরব না। এইটার জন্য আমাদের ভয় নাই। কিন্তু আমরা ক্ষুধার জন্য মরছি। মাঝে মধ্যেই প্রতিবেশিরা খাবার দেই তা দিয়ে কি আর চলা যায়। গত কয়েকদিন থেকে মেয়েটি ঘরে বাইরে মানুষের বাড়িতে যেতে পারিনি। ঘরে কোনো খাবার নেই আমার। খুব কষ্ট করে চলছি। খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছি। শুনতেছি বিভিন্ন জায়গায় ত্রাণ দেয়। কিন্তু আমরা এখনও তো পেলাম না।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ