• শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন |

ফোন করলেই বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেবেন এমপি ইসরাফিল

Red Chilli Saidpur

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) ।। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবের কারণে কর্মহীন, অসহায়, শ্রমজীবী, দিনমজুর ও অসচ্ছল পরিবারের জন্য ভ্যানে করে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে নওগাঁ- ৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য মো. ইসরাফিল আলম এমপি।

এমপি ইসরাফিল আলম এমপি বলেন, সবাইকে ঘরে থাকছে বলছি। কারণ অজ্ঞাত-অচিহ্নিত ও অদৃশ্য শক্তি করোনার বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করছি। আমরা নিজেরা যদি নিজ নিজ জায়গা থেকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সতর্ক না হই তাহলে আমাদের সর্বনাশ আমরাই ডেকে আনবো। কারণ এই করোনা ভাইরাস যদি কাউকে স্পর্শ করে তাহলে শুধু ওই ব্যক্তিই মারা যাবে না পুরো ওই গ্রাম এমনকি ওই অঞ্চলটি মৃত্যুপুরিতে পরিণত হবে। তাই আসুন আমরা ঘরের বাহিরে বের না হয়ে একটু কষ্ট হলেও তা মেনে নিয়ে নিজ নিজ জায়গা থেকে সতর্কতা অবলম্বন করে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে যুদ্ধ ঘোষনা করি। এই সংকট চলাকালীন সময়ে আপনাদের অভাবের কথা ঘরে ঘরে গিয়ে শোনা হবে এবং প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রীসহ অন্যান্য উপকরন পৌছে দিয়ে আসা হবে। সরকারের পাশাপাশি আমিসহ আমার লোকেরা রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলার প্রতিটি কর্মহীন মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে আপনাদের খোঁজ খবর নিয়ে সহযোগিতা দিয়ে আসবো। শুধুমাত্র আপনারা ঘরে বসে আল্লাহর কাছে দোয়া করবেন যেন আমাদের দেশে এই ভাইরাস মহামারি আকার ধারন না করে। আমি প্রতিদিন আমার গাড়ির পেছনে খাবারের প্যাকেট নিয়ে দুই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দিন-রাত ঘুরছি আর কর্মহীন মানুষদের খুজে খুজে বের করে খাবার সামগ্রী হাতে তুলে দিচ্ছি। যেখান থেকে কর্মহীন মানুষদের ফোন ও খবর পাচ্ছি সেখানেই সঙ্গে সঙ্গে খাবার পৌছে দিচ্ছি। যতদিন এই সংকট শিথিল না হচ্ছে ততদিন আমি ফেরি করে আপনাদের ঘরে ঘরে গিয়ে প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী পৌছে দিয়ে আসবো শুধুমাত্র দয়া করে আপনারা কেউ জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে বের হবেন না এবং কোন মোড়ে কিংবা বাজারে অযথা জটলা পাকাবেন না। তাই আসুন এই মরণঘাতক ভাইরাসের হাত থেকে আমি নিজে বাঁচি অন্যকেও বাঁচতে সহায়তা ও সতর্ক করি। তিনি আরো বলেন সরকার করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় ভিজিএফ, ভিজিডি, ১০টাকা কেজি চাল ও বিশেষ খাদ্য সহায়তা দিতে যে ব্যাপক ব্যবস্থা নিয়েছে তার সঠিক বাস্তবায়ন হলে কোনো মানুষই অভূক্ত থাকবে না। নির্বাচনের সময় যে ভাবে আমি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চেয়েছি ঠিক সেই ভাবেই আমার নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে কর্মহীন মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছি। কারণ আল্লাহর পর আমি আত্রাই ও রাণীনগর উপজেলার মানুষদের অভিভাবক। আমার ভান্ডারে পর্যাপ্ত পরিমান খাবার মজুদ আছে। আপনা ভয় পাবেন না। এছাড়াও এই খাবার বিতরন নিয়ে কেউ কোন অনিয়ম করলে তার বিরুদ্ধে আমার আদালতে দৃষ্টান্তর মূলক শাস্তির ব্যবস্থা করবো। আপনারা করোনা মোকাবেলায় ঘরে বসে থাকুন আতংকিত না হয়ে আপনি নিজে সচেতন হোন এবং আপনার আশেপাশের সবাইকে সচেতন হতে উদ্বুদ্ধ করুন।

সরকার করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় ভিজিএফ, ভিজিডি, ১০টাকা কেজি চাল ও বিশেষ খাদ্য সহায়তা দিতে যে ব্যাপক ব্যবস্থা নিয়েছে তার সঠিক বাস্তবায়ন হলে কোনো মানুষই অভূক্ত থাকবে না। নির্বাচনের সময় যে ভাবে আমি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চেয়েছি ঠিক সেই ভাবেই আমার নেতৃত্বে খাদ্য সামগ্রী অসহায়দের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবো।

আত্রাই উপজেলার কর্মহীন, অসহায়, শ্রমজীবী, দিনমজুর ও অসচ্ছল পরিবারের জন্য হট লাইনের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক ভাবে মানবিক খাদ্য সহায়তার হট লাইন নাম্বার গুলো হলো, ০১৭১৬৩৩১৭৯৭. ০১৭১১১৩৬৮১০. ০১৭২৮৭১৮৫৯১. ০১৭১৩৭৮৮৪৩৮. ০১৭৬৫৯১৯২৮০ ও ০১৭৪০৫৪০৭৮৭।

তিনি আরো বলেন, ত্রাণ বিতরণকে ঘিরে কেউ যদি অনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অমানবিক কাজে জড়িত হওয়ার চেষ্টা করছেন। এমন অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যাতে প্রকৃতভাবে ক্ষুধার্থ মানুষের ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া যায় সে জন্য আত্রাই-রাণীনগর বাসির সহযোগীতা কামনা করছি। আপনারা করোনা মোকাবেলায় ঘরে বসে থাকুন আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হন।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ