• শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন |

জেলা ছাত্রলীগ সভাপতির নেতৃত্বে তিন কৃষকের পাঁচ বিঘা জমির ধান কর্তন

Red Chilli Saidpur

নীলফামারী প্রতিনিধি। নীলফামারীতে কৃষকের মুখে হাসি ফোটাতে তিনজন কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের নেতারা।
শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুল হাসান শাহ্ আপেলের নেতৃত্বে চড়াইখোলা ইউনিয়নে তিন কৃষকের জমির ধান কেটে দেয়া হয়।
কৃষকরা হলেন আসাদুল হক, আবু তালেব ও রাহিদুল ইসলাম। তিন জনের পাঁচ বিঘা জমির ধান কেটে ঘরে তুলে দেন ছাত্রলীগের নেতারা।
কৃষক আবু তালেব জানান, টানা বৃষ্টিতে জমির ধান পানিতে তলিয়ে যাচ্ছিলো অন্যদিকে করোনা ভাইরাসের কারনে আর্থিক ভাবে সক্ষমতা ছিলো না শ্রমিক দিয়ে ধান কাটার।
এরই মধ্যে আপেল ভাই’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ নেন।
রাহিদুল ইসলাম নামে অপর কৃষক জানান, ভাইরাসের কারনে হামরা বাড়ি থেকে বাহির হইবার পারছি না। কামাই রোজগার নাই। তারপর যতোটুকু জমি আবাদ করছি, সেটাও বৃষ্টির পানিত তলে যাবার ধইরছে। ধান কাটি দিয়া আপেল ভাই হামার অনেক উপকার করিল।
জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মনিরুল হাসান শাহ্ আপেল জানান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতারা।
অসহায় এবং যেসব কৃষকের জমির ধান কর্তন করা প্রয়োজন এমন কৃষকরা আমাদের সাথে যোগাযোগ করলে আমরা জমির ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছি।
তিনি বলেন, প্রায় প্রতিদিনই জেলা ছাত্রলীগের নেতারা বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হয়ে অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছেন।
চড়াইখোলায় ধান কাটায় অংশ নেন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হুসেইন রেজা শামিম, গোলাম মোস্তফা বুলেট, সুমন ইসলাম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেন, সদস্য হাফিজুর রহমান জুয়েল, সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান রোকন, শফিকুল ইসলাম, তানভীর ইসলাম মিথুন, দপ্তর সম্পাদক সঙ্গীত দ্বীপংকর।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ