• শনিবার, ০৮ অগাস্ট ২০২০, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে এনএসআই’র তথ্যে ৬০ টন নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার

Red Chilli Saidpur

সিসি নিউজ ।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে শহীদ জহুরুল হক সড়কের (বিচালিহাটি) অভিযান চালিয়ে ৩টি গোডাউন থেকে ৬০’টন নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার করেছে যৌথ বাহিনী। উদ্ধারকৃত পলিথিন জব্দ করাসহ তিনজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

আজ রবিবার (২৬’শে জুলাই) বিকেলে র‌্যাব-১৩ সিপিসি-২, এনএসআই এবং পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে। এতে যৌথভাবে নেতৃত্ব দেন নীলফামারী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জায়িদ ইমরুল মোজাক্কির এবং মাহবুব হাসান। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নীলফামারী জেলার এনএসআই’র উপ-পরিচালক খালিদ হাসান, র‌্যাব-১৩ এর সহকারী পুলিশ সুপার ইমরান খানসহ যৌথবাহিনীর সদস্যরা।

অভিযান সূত্রে জানা যায়, শহরের উল্লেখিত সড়কের ওই ৩টি গোডাউন মালিক সাবদার হোসেন, আব্দুর রশিদ ও ইমরান দীর্ঘদিন ধরে নিষিদ্ধ ঘোষিত পলিথিনের ব্যবসা করে আসছিল। উপজেলাসহ বিভিন্ন জেলায় তারা পলিথিন বাজারজাত করে আসছিল।

ঘটনার দিন এনএসআইয়ের দেয়া তথ্যে ও পরিকল্পনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটদ্বয়ের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় প্রায় ৩ কোটি টাকা মূল্যের উল্লেখিত পরিমাণ নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তর রংপুর জেলার পরিদর্শক কাজী সাইফুদ্দীন উদ্ধারকৃত মালামাল জব্দ করে রংপুর অফিসে নিয়ে যান। নিষিদ্ধ পলিথিন উৎপাদন ও বাজারজাত করার অপরাধে ১৯৯৫ সালের পরিবেশ আইন মোতাবেক গোডাউন মালিকের প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে মোট ৩ লাখ অর্থদন্ড এবং অনাদায়ে ৬ মাসের জেল দেয়া হয়।
অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জায়িদ ইমরুল মোজাক্কির বলেন, নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

“সৈয়দপুরে এনএসআই’র তথ্যে ৬০ টন নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার” এ একটি মন্তব্য

  1. মোঃ রাসেল সরকার বলেছেন:

    সারাদেশে যেন এই অভিযান অব্যহত থাকে। পলিথিন কারখানাগুলোয় রেড করে সিলগালা করে দেয়া উচিত। ধন্যবাদ প্রশাসন, ধন্যবাদ সকলকে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আর্কাইভ