• রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন |

জয়পুরহাটে ড্যান্স ক্লাবের অন্তরালে তরুণীদের দেহ ব্যবসায় বাধ্য করার অভিযোগে

জয়পুরহাট প্রতিনিধি ।। জয়পুরহাটে ডান্সগ্রুপের অন্তরালে তরুনীদের ব্লাক মেইল করে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করার অভিযোগে প্রতারক চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার মধ্যে রাতে শহরের প্রফেসর পাড়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় ৩ তরুনীকেও উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।
আটককৃতরা হলেন-জয়পুরহাট পৌর শহরের তাঁতিপাড়া মহল্লার মেহেদি হাসানের স্ত্রী মিনু আক্তার (২৪), গুলশান মোড় মহল্লার আব্দুল মজিদের ছেলে সুমন আহম্মেদ (৪২) এবং তার স্ত্রী মৌসুমি আক্তার (২৬)।
র‌্যাব-৫ এর জয়পুরহাট ক্যাম্প অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম মোহাইমেনুর রশিদ জানান, দীর্ঘদিন থেকে সুন্দরী তরুনীদের নিয়ে একটি ডান্সগ্রুপ চালিয়ে আসছিলেন সুমন। ড্যান্স গ্রুপের অন্তরালে তরুনীদের বিভিন্ন সময় কৌশলে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে রাখা হতো। পরে ওই তরুনীদের ভয় ভীতি দেখিয়ে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে আসছিলেন সুমনসহ আটকৃকরা।
এমন তথ্যর ভিত্তিতে শহরের প্রফেসর পাড়ায় অভিযান চালিয়ে ৩ তরুনীকে উদ্ধার, অশ্লিল ভিডিও ধারনকৃত ৬টি মোবাইল ফোনসহ তাদের আটক করা হয়।
আজ রোববার সকালে আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা করাসহ তাদের জয়পুরহাট সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলেও জানান স্থানীয় র‌্যাব অধিনায়ক।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ