• শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন |

জয়পুরহাটে ধর্ষকের ৪২ বছরের কারাদন্ড

জয়পুরহাট প্রতিনিধি।। জয়পুরহাট সদর উপজেলার হরিপুরর গ্রামে ধর্ষিতা কিশোরীর আত্মহত্যার ঘটনার মামলার রায়ে ধর্ষকের ৪২ বছরের কারাদ্বন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। আজ বৃহষ্পতিবার দুপুরে জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মোঃ রুস্তম আলী এক জনাকীর্ন আদালতে এ রায় দেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনীতে জানা যায়, ২০১২ সালের ৩০জুন দুপুরে জয়পুরহাটের হরিপুর উত্তরপাড়া গ্রামের কিশোরী কন্যা খাতিজা বেগম বাড়ির পাশে নিজেদের ক্ষেতে যায়। সেখানে মেয়েটিকে একা পেয়ে একই গ্রামের আবুল কালামের ছেলে মাসুদ রানা তাকে জোর করে সেখান থেকে পাশর্^বর্তী পাট ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে। খাতিজার আর্তচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে মাসুদ রনা পালিয়ে যান।

ওই ঘটনার জেরে লোকলজ্জা ও অভিমানে ১ দিন পর ২ জুলাই খাতিজা নিজ শয়ন কক্ষে বিষ পানে আত্মহত্যা করে। এ ব্যাপারে খাতিজার বাবা হেলালুদ্দিন বাদি হয়ে পর দিন ৩ জুলাই জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা করলে একই সালের ১৮ নভেম্বর পুলিশ আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করে।

দীর্ঘ শুনানী শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক ধর্ষকের বিরুদ্ধে ৪২ বছরের যাবজ্জীন কারাদ্বন্ডের আদেশ দেন। তবে ধর্ষনের পর থেকে ধর্ষক মাসুদ রানা এখন পর্যন্ত পলাতক থাকায় রায়ের সময়ও তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া মামলার শুরু থেকে আসামী পক্ষেরও কোন আইনজীবি ছিলেন না।

রাষ্ট্র পক্ষের আইজীবি এ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল এ সব তথ্য নিশ্চিত করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ