• মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুর বিএনপিতে ‘ঘরের ছেলে ঘরে ফিরতে চায়’!

সিসি নিউজ ।। দীর্ঘ ২০ বছর পর আবারো বিএনপিতে যোগদান করছেন নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী। আসন্ন সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনের পূনঃ তফসিল ঘোষনা হলে মেয়র পদে প্রার্থী হচ্ছেন বলে তিনি সিসি নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র মতে, ছাত্রজীবন থেকে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির সাথে তিনি জড়িত ছিলেন। ৮০ দশকে ছাত্রদলের সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা শাখার সভাপতি এবং পরবর্তীতে যুবদলের সভাপতি হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেন। এরপর দীর্ঘ ১৭ বছর সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক পদে থেকে দলকে সুসংগঠিত করার অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন তিনি।

তিনি সিসি নিউজকে জানান, জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য ও বিরোধীদলীয় হুইপ ছিলেন বটে কিন্তু দলের নিয়ম-নীতি পরিচ্ছন্ন নয় এবং একটি দলের লেজুড়বৃত্তি রাজনীতিতে বাধ্য করায় ইতিপূর্বে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় সকল কমিটি ও সদস্য থেকে পদত্যাগ করেছি।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির অন্যতম সদস্য অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকারের মৃত্যুতে যে অপূরণীয় ক্ষতি তা পূরণ হওয়ার নয়। তাই ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে যেতে চাই এবং দলের নেতাকর্মীদের সাথে থেকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের হাতকে শক্তিশালী করতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবো ইনশাল্লাহ।

এক প্রশ্নের জবাবেব তিনি বলেন, সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনে দল যদি আমাকে ধানের শীষ প্রতীক দিয়ে মনোনয়ন দেয়, তাহলে অবশ্যই দলের নেতাকর্মী ও সৈয়দপুরবাসীকে সাথে নিয়ে নিবাচন করবো। আমার বিশ্বাস সৈয়দপুরের আপামর মানুষের অন্তরে এখনও শওকত চৌধুরী রয়েছে।

সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী বিএনপিতে যোগ দিচ্ছেন এমন আলোচনা এখন শহরজুড়ে। সাধারন মানুষের প্রতিক্রিয়ায় নেতিবাচকের চেয়ে ইতিবাচক দিকটাই বেশি আসছে। বিশেষ করে সংসদ সদস্য হিসেবে পাঁচ বছরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ, স্কুল-কলেজের এমপিওভুক্তি, রাস্তা-ঘাটসহ দৃশ্যমান নানা উন্নয়ণের চুলচেরা বিশ্লেষন করছে সৈয়দপুরের মানুষ।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সৈয়দপুর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন সিসি নিউজকে বলেন, বিএনপি এখন দেউলিয়া রাজনীতির সংগঠনে পরিনত হয়েছে। নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েও সৈয়দপুরে ওই রাজনীতির একজন নেতা ভয়ে প্রত্যাহার করে নেয়, যা নিয়ে দলটির মধ্যে কোন মিশ্র প্রতিক্রিয়াও পরিলক্ষিত হয়নি। সেই দলে নতুনের আগমনে সৈয়দপুরে রাজনৈতিক কিংবা ভোটে কোন প্রভাব ফেলবে বলে আমার মনে হয় না।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা শাখার আহবায়ক অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার সিসি নিউজকে বলেন, বিএনপিতে শওকত চৌধুরী যোগ দিচ্ছেন- এটা আমার জানা নেই। কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা ছাড়া জেলা, উপজেলা বা অন্য কোন কমিটি কাউকে সদস্য হিসেবে গ্রহন করার এখতিয়ার নেই।

জাতীয় পার্টি সৈয়দপুর উপজেলা কমিটির আহবায়ক সিদ্দিকুল আলম সিদ্দিক বলেন, ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে যাওয়ার আগে কোথায় ছিলেন? জাপা থেকে সংসদে আর সংসদে গিয়ে বিরোধীদলীয় হুইপ- এটা কি ভুলে গেছেন! তিনি সিসি নিউজকে বলেন, জাপার কেন্দ্রীয় কমিটিতে শওকত চৌধুরী এখনও আছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সকল কমিটি থেকে তাঁর পদত্যাগের বিষয়টি আমরা কেউ জানি না।

প্রবীণ সাংবাদিক ও সৈয়দপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল হক এ প্রসঙ্গে বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে শওকত চৌধুরী এ রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। ফিরে আসতে পারেন এটা স্বাভাবিক। বাংলাদেশের রাজনীতিতে অনেক নেতাই দল পরিবর্তন করে আবার নিজ দলে ফিরে এসেছেন। তবে দেশের বড় দুই রাজনৈতিক দল স্থানীয় নির্বাচনে সদ্য যোগদানকারীকে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে অনেক হিসাব-নিকাশ করেন বলে তিনি সিসি নিউজকে জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!