• সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৯:২০ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে অবৈধ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযান (ভিডিও)

সিসি নিউজ ।। হাইকোর্টের নির্দেশে আবারো শুরু হয়েছে অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে অভিযান। আজ বুধবার এ উচ্ছেদ অভিযানে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৭টি অবৈধ ইটভাটার আংশিক।

পাশাপশি ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর ০৫, ০৮ (০৩) ধারায় মাটির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ ও হ্রাসকরণে এ ৮টি ইটভাটাসহ বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের ইকবাল হোসেন ভোলার মেসার্স আরএসবি ব্রিকস ইটভাটা থেকে মোট ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

ইটভাটাগুলো হলো- সেলিনা বেগমের মালিকানাধীন মেসার্স এমবিসি ব্রিকস, জোবাইদুল ইসলামের মেসার্স ডিবিএল ব্রিকস, আব্দুর রাজ্জাকের মেসার্স এমএইচই ব্রিকস, মো. নুর উদ্দিনের মেসার্স সিএন ব্রিকস, জিকরুল হকের মেসার্স এমজেএইচ ব্রিকস, মোজাম্মেল হকের মেসার্স থ্রি স্টার ব্রিকস ও আব্দুল মজিদেও মেসার্স এবি ব্রিকস।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট রেজিনা আকতার ও রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মেজবাবুল আলমের নেতৃত্বে¡ অভিযানে অংশ নেয় পুুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস, আনসার ভিডিপি ও গ্রাম পুলিশ।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট রেজিনা আকতার বলেন, ২০১৩ সাল থেকে নীলফামারী জেলার ৬০টি ইটভাটার মধ্যে ৭টি ইটভাটা সনাতন পদ্ধতিতে চলছে। যা মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করেছে। এসব ভাটা আংশিক গুড়িয়ে ও জরিমানা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে নিজেরাই তা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মেজবাবুল আলম বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী অবৈধ সব ইটভাটাতেই অভিযান চালানো হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব ইটভাটায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে না। তাছাড়া পরিবেশ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনের কোন লাইসেন্স নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!