• শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন |

তিন মাস পর পরীক্ষা দিলেও সেশনজট পড়বে না

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তিন মাস পর পরীক্ষা দিলেও সেশনজটে পড়বে না। এমনকি যাদের বয়স বেড়ে যাবে তাদেরও কোনো সমস্যা হবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় একটি অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের শিক্ষার্থীরা জাতির বৃহৎ স্বার্থের বিষয়টি বুঝবে। তাদের পরীক্ষা তিন মাস পর নিলেও তারা কোনো সেশনজটে পড়বে না। এমনটি বয়সজনিত বিষয়েও কোনো ধরনের সমস্যায় পড়বে না।’

শিক্ষামন্ত্রী জানান, দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার কারণে হলগুলোর সংস্কারকাজ এবং শিক্ষার্থীর সুরক্ষার কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার জন্য সময় নেয়া হয়েছে। এসময় শিক্ষার্থীদের সরকারের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী। শিক্ষার্থীরা আর আন্দোলন করবেন না বলেও প্রত্যাশার কথা জানান দীপু মনি।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পেছনে অশুভ শক্তির হাত আছে অভিযোগ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দেখছি একটি চিহ্নিত মহল দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য, সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য বারবারই অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। কখনো ভাস্কর্যের নামে আন্দোলন করছেন, কখনো বিদেশি একটি সংবাদমাধ্যমে মিথ্যা নানান তথ্য প্রচার করছেন, সাজানো নাটক প্রচার করছেন। সেগুলোর সবকিছুতে বিফল হয়ে এখন আমাদের ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন।’

দীপু মনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের ছাত্রসমাজের হাতেই আমরা আমাদের ভাষা আন্দোলন পেয়েছি, ভাষার অধিকার পেয়েছি, স্বাধীনতা পেয়েছি, গণতন্ত্রের আন্দোলনে ছাত্রসমাজ অনন্য ভূমিকা পালন করেছে। আজকে যখন বৈশ্বিক সংকট চলছে, সেই সময়ে শিক্ষাবান্ধব সরকার, বঙ্গবন্ধুকন্যার সরকার সুচিন্তিত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটা সব উপাচার্যের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

এদিকে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে পরীক্ষা নেয়া এবং আটক শিক্ষার্থীদের মুক্তি দিতে তিন দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন স্থগিত করে তারা জানিয়েছেন, আগামী রবিবারের মধ্যে দাবি আদায় না হলে তারা আবার আন্দোলনে নামবেন।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর শাহবাগে বিক্ষোভে নামেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন সরকারি কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা। এ সময় ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ। বেলা ২টার দিকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিতের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার পর বেশ কিছু শিক্ষার্থী শাহবাগ মোড়ে এসে অবস্থান নেন। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত শিক্ষার্থীরা তাদের পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে গত বুধবার শাহবাগ, নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন। একপর্যায়ে স্থগিত পরীক্ষা নেয়ার কথা বলা হলে সড়ক ছেড়ে চলে যান তারা। পরে রাতেই সাত কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!