• মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫৭ পূর্বাহ্ন |

হিলিতে গুপ্তধন উত্তোলনের কথা বলে গণধর্ষণ: কবিরাজ আটক

হিলি প্রতিনিধি ।। বাড়ি থেকে গুপ্ত ধন উত্তোলনের কথা বলে এক নারীকে রাত ভর গণ ধর্ষণ করার অভিযোগে ২ ভুয়া কবিরাজকে আটক করেছে পুলিশ । ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার হিলির বড় ডাঙ্গাপাড়ায় মন্টু মিয়ার বাড়ীতে।

জানা গেছে, ভণ্ড ওই দুই কবিরাজ মন্টু মিয়াকে বলেন তার বাড়িতে গুপ্ত ধন আছে এবং তারা সেই গুপ্ত ধন তুলে দিতে পারবে সে জন্য এক নারী লাগবে। কবিরাজের কথামত মন্টু ও তার লোকজন বিরামপুর থেকে ৫ হাজার টাকায় এক নারীকে ভাড়া করে নিয়ে আসে। গত ৪ মার্চ ঘটনার রাতে প্রতারক ২ ভণ্ড কবিরাজ ওই নারীর শরীরে জ্বীন হাজির করার কথা বলে রাতে নিজন ঘরে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।
হাকিমপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, ওই মেয়ে পরের দিন বাড়িতে গিয়ে তার অভিভাবকদের ধর্ষণের ঘটনা খুলে বললে তারা ওই ২ প্রতারক কবিরাজকে ফোন দিয়ে তাদের বাড়িতে ডেকে আনেন এবং আটকিয়ে রাখেন। পরে ভণ্ড কবিরাজের পরিবার থেকে ৯৯৯ এ কল করে তাদের উদ্ধারের জন্য পুলিশকে জানালে বিরামপুর থানা পুলিশ ২ কবিরাজকে উদ্ধার করেন।এবং নারীকে ধর্ষণের বিষয়টি অবগত হয়ে হাকিমপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

ধর্ষিতা নারীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে হাকিমপুর থানা পুলিশ মঙ্গলবার ১৬ মার্চ দুপুরে ভণ্ড ২ কবিরাজকে আটক করা হয়। এবং ওই নারী ২ ধর্ষকসহ ৫ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার ৩ আসামী পলাতক রয়েছে।

আটক কবিরাজরা হলেন দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলা বিশাইনাথপুর গ্রামের মমতাজ আলীর ছেলে মেসাতালেব (৪০) ও ফয়জার রহমানের ছেলে ইসমাইল হোসেন (৩২)।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!