• শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১১:২২ অপরাহ্ন |

পটকা ফুটানোয় সৈয়দপুরে বিয়ের আসরে তালাক!

বর আরসাদুল ইসলাম

সিসি নিউজ।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিয়ে বাড়িতে পটকা ফুটানোকে কেন্দ্র করে ভেস্তে গেলে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। আনন্দ-উল্লাস রূপ নিলো মারামারিতে। ৯৯৯ জরুরী সেবার পুলিশ এসে উদ্ধার করলো বরপক্ষকে। অতঃপর কাজী ডেকে নেওয়া হলো কনের তালাক।

উপজেলার উত্তর সোনাখুলী নেছারিয়া জুম্মাপাড়ায় (দলবাড়ি পাড়া) শুক্রবার রাতে ওই ঘটনাটি ঘটে।  শনিবার (১৯ জুন) দুপুরে বিয়ের আসরে নেওয়া হয় কনের তালাক। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃস্টি করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ওই এলাকার মো. রশিদুল ইসলামের মেয়ে সুমাইয়া আক্তার স্মৃতি’র (১৯) সাথে গত ২২ এপ্রিল বিয়ে রেজিষ্ট্রি হয় একই উপজেলার পূর্ব বেলপুকুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের হুসেন আলীর ছেলে আরসাদুল ইসলামের। গত শুক্রবার (১৮ জুন) ছিল কনে বিদায়ের দিন। সন্ধ্যায় বরপক্ষের লোকজন কনের বাড়িতে এলে শুরু হয় আপ্যায়ন। পরে কনে বিদায়ের সময় বরপক্ষের লোকজন কনেপক্ষের মেয়েদের সামনে শুরু করে পটকাবাজি। এক পর্যায়ে কনেপক্ষের লোকজন বাধা দিলে বর আরসাদুল তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এভাবে উভয়পক্ষের মধ্যে বেঁধে যায় বাকবিতন্ডা। এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। দুটি মাইক্রোবাসসহ সারারাত বরপক্ষকে আটকে রাখেন কনেপক্ষ। পরদিন শনিবার (১৯ জুন) সরকারি জরুরী সেবা ৯৯৯-এ কল পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। আটক বরযাত্রীদের উদ্ধার করে পৌছে দেয়া বাড়িতে।

পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির উপস্থিতিতে নেওয়া হয় কনে তালাক। নগদে বুঝে নেওয়া হয় যৌতুক বাবদ বরপক্ষকে দেওয়া ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খাঁন বলেন, জরুরী সেবায় ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। আটক বরপক্ষের লোকজনকে নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!