• শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১১:৫২ অপরাহ্ন |

বিয়ের চাপ দেওয়ায় কিশোরীকে খুন

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। কুষ্টিয়ার মিরপুরে ভুট্টাখেত থেকে স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধারের পর তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে আপন (১৭) নামে এক কলেজছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) দুপুরে কুষ্টিয়া পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস বিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ সুপার।

আপন মিরপুর পৌরসভার কুরিপোল গ্রামের রংমিস্ত্রি মিলনের ছেলে। সে আমলা সরকারি কলেজের ছাত্র। পুলিশ সুপার খাইরুল আলম বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রধান আসামিকে আটক করেছি। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে আপন হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

তিনি আরও বলেন, ওই ছাত্রীর সঙ্গে কলেজছাত্রের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ওই স্কুলছাত্রী প্রেমিককে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন এবং চাপ সৃষ্টি করে। বিয়ের বিষয়ে কলেজছাত্রের বাড়ির লোকজন রাজি না হওয়ায় রাতের অন্ধকারে কৌশলে ডেকে ভুট্টাখেতে তরুণীকে নিয়ে যান প্রেমিক। ছুরি দিয়ে পেটে ও গলায় আঘাত করে মৃত্যু নিশ্চিত করে বলে তিনি জানান।

ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকরা জানান, নৃশংসভাবে নির্যাতন করে তাকে হত্যা করা হয়েছে। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এমনকি তার শরীর পোড়ানোও হয়েছে। গলায় রশি প্যাঁচানো ছিল। কিশোরীকে ধর্ষণও করা হয়ে থাকতে পারে। সেটা নিয়ে আরও আলোচনা করে প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

বুধবার (১৪ জুলাই) বিকেল ৩টায় কুষ্টিয়া-মেহেরপুর আঞ্চলিক সড়কের মিরপুর পৌরসভার ভাঙাবটতলা এলাকায় ভুট্টাখেত থেকে ওই স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার বাড়ি মিরপুর পৌর এলাকায়। সে স্থানীয় একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। ১৩ জুলাই রাত থেকে ওই ছাত্রী নিখোঁজ হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!