• বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন |

আদিতমারী নির্বাচনী সহিংসতায় ৭২ জন হাসপাতালে ভর্তি

সিসি নিউজ ডেস্ক।। লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের নির্বাচনের ঘটনায় পরবর্তি সহিংসতায় হাসপাতালে ৭২ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এদিকে প্রতিদিনেই হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়াতে নতুন ওয়ার্ড চালু করেছেন হাসপাতাল কৃতপক্ষ।

শনিবার (১৩ নভেম্বর) রাত সাতে ৮টার দিকে আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোক্তারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। রোগীদের নতুন ওয়ার্ড এ তথ্য নিশ্চিত করেন আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তৌফিক আহমেদ। তিনি বলেন, হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৬২ জন। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে অনেকেই বাড়ি ফিরে গেছেন।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার(১১ নভেম্বর) আদিতমারী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারন সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনকে ঘিরে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সহিংস ঘটনা ঘটে। নির্বাচন পরবর্তি প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে জয়-পরাজয় ও ভোট দেয়া, না দেয়া নিয়েও বেশ কিছু স্থানে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলা ও অগ্নি সংযোগের ঘটনাও ঘটে। এতে বেশ কিছু লোক আহত হয়েছেন। আহতদের আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সসহ পাশ্ববর্তি সদর হাসপাতালসহ কয়েকটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ দিকে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট আদিতমারী হাসপাতালে রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় নতুন ওয়ার্ড চালু করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের আইশোলেসন ওয়ার্ডেও রাখা হচ্ছে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত রোগীদের। রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসকরাও বেশ ব্যস্থ রয়েছেন। অনেক রোগী প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, গত ৭২ ঘন্টায় নির্বাচনী সহিংসতায় আহত হয়ে এ হাসপাতালে ৬২ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। যার মধ্যে ৮জনকে আশংকজনক অবস্থায় রেফার করা হয়েছে। যার মধ্যে ২জনকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ও ৬জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে নারীও রয়েছেন।

আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তৌফিক আহমেদ জানান, নির্বাচনী সহিংসতায় আহত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় নতুন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। তবে রোগীদের চিকিৎসায় পর্যাপ্ত ওষুধপত্রসহ চিকিৎসক রয়েছেন।

এ দিকে নির্বাচন পরিবর্তি সহিংসতা দমানোর জন্য থানা পুলিশের নিয়মিত টহলের সাথে যুক্ত রয়েছে ৫টি মোবাইল টিম। তবুও দমানো যাচ্ছে না নির্বাচন পরবর্তি সহিংসতা। হামলার শিকার লোকজন বিচার চেয়ে থানায় লিখিত অভিযোগও দায়ের করছেন। সে দিক থেকে থানায় অভিযোগের চাপও বেড়েছে।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোক্তারুল ইসলাম বলেন, সহিংসতা রোধে নিয়মিত টহলও অব্যহত রয়েছে। নির্বাচনী সহিংসতায় এখন পর্যন্তটি ৪টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এসব ঘটনার সুষ্ঠ ভাবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ