• মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২০ অপরাহ্ন |

নীলফামারীতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান: গ্রেফতার ৫

সিসি নিউজ ।। নীলফামারী সদরের সোনারায় ইউনিয়নে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। শনিবার সকালে ওই ইউনিয়নের পুটিহারী গ্রামের মাঝাপাড়ার একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। বাড়িটির মালিক জঙ্গি সদস্য শরিফুল ইসলাম ওরফে শরিফ। র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে রাতে সোনারায় ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে ওহিদুল ইসলাম, ওয়াহেদ আলী, আব্দুল্লাহ আল মামুন, জাহিদুল ইসলাম ও নুরুল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যমতে, শরিফের এ বাড়িতে বোমা তৈরী করা হয়। এছাড়া ফেসবুকে একটি গ্রুপ খুলে সংগঠনের কার্যক্রম পরিচালনা করার কথাও স্বীকার করেন তারা।

তিনি জানান, অভিযানের খবর পেয়ে বাড়ির মালিক জঙ্গি শরিফ উদ্দিন আগেই পালিয়ে যায়। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্ত্রী মিনা খাতুন ও তার শ্বাশুড়ী খোদেজা বেগমকে আটক করে রংপুর র‌্যাব ক্যাম্পে নেয়া হয়েছে।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সোনারায় এলাকার একটি বাড়িতে জঙ্গিরা অবস্থান করছে এমন সংবাদে ভোর থেকে র‌্যাব সদস্যরা বাড়িটির আশপাশ ঘিরে ফেলে। সকাল ৯টার দিকে রংপুর থেকে র‍্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে। পরে সকাল পৌনে ১০টার দিকে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে র‍্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস) কর্নেল কে এম আজাদ এবং র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

সকাল ১০টার দিকে র‍্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস) কর্নেল কে এম আজাদের নেতৃত্বে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। ঘন্টা ব্যাপী এ অভিযানের সময় সেখানে একটি আইইডি-সদৃশ বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার শেষে সেটি নিষ্ক্রিয় করে র‍্যাবের বোম ডিস্পোজাল ইউনিট। এ ছাড়া জঙ্গি আস্তানায় বোমা তৈরির বিভিন্ন রাসায়নিক সরঞ্জাম উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।

র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সংবাদকর্মীদের জানান, ওয়াহেদ আলীর নেতৃত্বে এই বাড়িতে বোমা তৈরির কাজ করা হতো বলে আমরা জেনেছি। রংপুর অঞ্চলে সেই এই কাজ করতো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ