• বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন |

ছাত্রদল করতেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নিজের বক্তব্যের এক অংশে বলেছেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান ছাত্রদল করতেন। এ কথা বলার পরই দর্শক সারি থেকে এর প্রতিবাদ করেন যুবদল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক গোলাম মওলা শাহীনসহ কয়েকজন। এরপর মহাসচিব তাকে বলেন, ‘ইউ ডোন্ট নো, তুমি জানো না। আমি জেনে বলছি’।

দুপুরে রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ‘স্বৈরাচারের পতন ও গণতন্ত্র দিবস’ উপলক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক ছিলেন। তিনি এ কথা বলে শেষ করতে পারেননি, এরমধ্যেই যুবদল নেতা গোলাম মাওলা শাহীনসহ ছাত্রদলের কয়েকজন প্রতিবাদ জানান। উপস্থিত নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে মঞ্চে উপস্থিত বিএনপি নেতারা শান্ত করেন।

উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, সভায় মূল প্রতিবাদী গোলাম মাওলা শাহীন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর অনুসারী। এ বিষয়ে গোলাম মাওলা শাহীন বলেন, ‘মহাসচিব যা বলেছেন, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে চাই না।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, শুনেছি ডা. মুরাদ নাকি একসময় ছাত্রদল করতেন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রচার সম্পাদক ছিলেন। পরবর্তীকালে তিনি ছাত্রলীগে যোগ দেন। ওই প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমি যা কিছু করছি, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই করছি এবং তিনি সবকিছু জানেন’। এখন প্রধানমন্ত্রীকেই এই কথা সত্য না মিথ্যা জানাতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পরিবারকে নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এই বক্তব্যকে ‘অশালীন মন্তব্য’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে মুরাদ হাসানের বিষয়ে সরকারের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, আজকে স্পষ্ট প্রশ্ন করতে চাই প্রধানমন্ত্রীকে, এ কথা সত্য না মিথ্যা আপনাকে জানাতে হবে, কারণ, আপনি প্রধানমন্ত্রী। এ দেশের মানুষের নিরাপত্তা এবং তার নিজের মর্যাদাকে রক্ষা করা এবং একইসঙ্গে এই ভয়াবহ উক্তি যদি দেশের একজন মন্ত্রী করতে পারেন, আপনার সরকারের অবস্থান কী—আমরা জানতে চাই। এটার উত্তর দিতে হবে। কারণ, এতে আপনাকে জড়িয়ে কথা বলা হয়েছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম মুরাদ হাসানের সমালোচনায় বলেন, স্যোশাল মিডিয়ায় জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে অত্যন্ত জঘন্য, নিকৃষ্ট কথাবার্তা বলছেন একজন ‘ভুঁইফোড়’ ডাক্তার। তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যে আমরা তীব্রভাবে শুধু প্রতিবাদ নয়, আমাদের ঘৃণা প্রকাশ করছি, ধিক্কার জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ